মঙ্গলবার, ১৯ নভেম্বর ২০১৯ | ৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

Select your Top Menu from wp menus

সন্তানকে সুশিক্ষায় শিক্ষিত করে গড়ে তুলতে হবে: জেলা প্রশাসক

স্টাফ রিপোর্টার: কর্মজীবী ল্যাকটেটিং মাদার সহায়তা তহবিল কর্মসূচি ২০১৮-১৯ অর্থবছরের আওতায় উপকারভোগী মহিলাদের জন্য স্বাস্থ্যসেবা হেলথ ক্যাম্প কার্যক্রম শুক্রবার (৪ অক্টোবর) খুলনার শেখপাড়াস্থ শহীদ শেখ আবু নাসের মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে বিনামূল্যে স্বাস্থ্যসেবা প্রদান অনুষ্ঠিত হয়। খুলনা জেলা প্রশাসন এবং মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তর যৌথভাবে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় খুলনার জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ হেলাল হোসেন বলেন, সরকার নারী উন্নয়ন ও নারীর কল্যাণে কাজ করে যাচ্ছে। সন্তানদের প্রতি অভিভাবকদের যতœবান হতে হবে। শিশুদের বেড়ে ওঠার সুযোগ দিতে হবে এবং প্রতিটি সন্তানকে সুশিক্ষায় শিক্ষিত করে গড়ে তুলতে হবে। সন্তান যেন খারাপ পথে না যায় সে দিকে অভিভাবকদের খেয়াল রাখতে হবে। তিনি বলেন, সরকার বয়স্ক ভাতা, বিধবা, স্বামী পরিত্যক্তা, মাতৃকালীন, প্রতিবন্ধী, মুক্তিযোদ্ধা ভাতাসহ বিভিন্ন ভাতা চালু করছে।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তৃতা করেন খুলনা মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের উপপরিচালক নার্গিস ফাতেমা জামিন, মুক্তিযোদ্ধা মোঃ আলমগীর কবির, সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর মাহমুদা বেগম, সাবেক কেসিসির প্যালেন মেয়র রুমা খাতুন, নারী নেত্রী হালিমা বেগম প্রমুখ। 

অনুষ্ঠানে জানানো হয়, একজন নারী মাতৃকালীন প্রতিমাসে আটশত টাকা করে তিন বছর পর্যন্ত এই ভাতা পাবেন। ছয় মাস পর পর এই ভাতা তুলতে পারবে।

অনুষ্ঠানে ১৬ থেকে ২৮ নম্বর ওয়ার্ড মোট ১৩টি ওয়ার্ডে প্রায় এক হাজার একশ ২৬জন মা ও শিশুকে বিনামূল্যে চিকিৎসাসেবা প্রদান করা হয়। অনুষ্ঠানে জেলা প্রশাসক মা ও শিশুদের মাঝে স্বাস্থ্য উপকরণ বিতরণ করেন।

পরে রূপসার দাদাম্যাচ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে কর্মজীবী ল্যাকটেটিং মাদার সহায়তা তহবিল কর্মসূচির আওতায় ২৯, ৩০ ও ৩১ নম্বর ওয়ার্ডের প্রায় এক হাজার তিনশ ৯৭ জন মা ও শিশুকে বিনামূল্যে চিকিৎসাসেবা প্রদান ও স্বাস্থ্য উপকরণ বিতরণ করা হয়।

 

Related posts