মঙ্গলবার, ৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ ❙ ২৪ মাঘ ১৪২৯

‘রাষ্ট্রকে সংখ্যালঘুর নিরাপত্তার বিষয়টি বিবেচনা করতে হবে’

স্টাফ রিপোর্টার: খুলনা জেলা সুরক্ষা, নাগরিক অধিকার ও মর্যাদা (সুনাম) কমিটির আয়োজনে ‘সংখ্যালঘু নির্যাতন এবং রাষ্ট্রের ভূমিকা’ শীর্ষক মতবিনিময় সভা গতকাল মঙ্গলবার প্রেস ক্লাবের শহীদ হুমায়ুন কবীর বালু মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হয়। মানবাধিকার সংগঠন শারি ও হিউম্যানিটিওয়াচ এর সহযোগিতায় গোলটেবিল আলোচনায় প্রধান অতিথি ছিলেন খুলনার জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ হেলাল হোসেন।
বিশেষ অতিথি হিসেবে খুলনা মেট্রোপলিটন পুলিশ এর অতিরিক্ত কমিশনার সোনালী সেন, আঞ্চলিক তথ্য অফিসের উপ প্রধান তথ্য অফিসার ম. জাভেদ ইকবাল ও খুলনা প্রেস ক্লাবের সভাপতি এস.এম. হাবিব উপস্থিত থেকে বক্তব্য দেন। শিক্ষাবিদ অধ্যাপক আনোয়ারুল কাদির এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মতবিনিময় সভায় স্বাগত বক্তব্য দেন শারি’র নির্বাহী পরিচালক প্রিয় বালা বিশ্বাস। দৈনিক কালের কন্ঠের ব্যুরো চীফ গৌরাঙ্গ নন্দী’র সঞ্চালনায় শারি’র এডভোকেসী কো-অর্ডিনেটর রঞ্জন বকসী নুপুর তৈরিকৃত ধারণাপত্র উপস্থাপন করেন সুনাম খুলনা জেলা কমিটির মানবাধিকার সম্পাদক এ্যাডভোকেট পপি ব্যানার্জী।
মতবিনিময় সভায় সংশ্লিষ্ট বিষয়ের উপর বক্তব্য দেন সুনাম এর সাধারণ সম্পাদন মাহমুদ হাসান রনি, সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোট এর আহবায়ক হুমায়ুন কবীর ববি, হিন্দু বৌদ্ধ খৃষ্টান ঐক্য পরিষদ এর মহানগর কমিটির সাধারণ সম্পাদক গোপাল চন্দ্র সাহা, খুলনা মহিলা পরিষদের সাধারণ সম্পাদক রসু আক্তার, খুলনা শিক্ষক সমিতির সভাপতি নিতাই পাল, শামিমা সুলতানা শিলু, এডভোকেট কুদরত ই খুদা, এডভোকেট অশোক কুমার সাহা, সিপিবির খুলনা মহানগর কমিটির সভাপতি এইচ এম শাহাদাত হোসেন, ধ্রুব’র নির্বাহী পরিচালক উত্তম কুমার দাস প্রমুখ।
আলোচনায় বক্তারা বলেন, বর্তমান সময় এই বিষয়ে আলোচনা অবশ্যই সময়পযোগী। সংখ্যালঘুদের মানবাধিকার সুরক্ষার জন্য যেমন রাষ্ট্রের দায়িত্ব রয়েছে, তেমনি ব্যক্তিগত তথা সামাজিক পর্যায়ে মানসিকতার পরিবর্তন আনা দরকার। রাজনৈতিক দলগুলোর এ ব্যাপারে জবাবদিহিতার আওতায় আনা প্রয়োজন। পাশাপাশি রাষ্ট্রকে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে সংখ্যালঘুর নিরাপত্তার বিষয়টি বিবেচনা করতে হবে।

Related posts