মঙ্গলবার, ২১ জানুয়ারি ২০২০ | ৭ মাঘ ১৪২৬

Select your Top Menu from wp menus

মোংলায় নৌযান শ্রমিকদের কর্মবিরতিতে অচলাবস্থা

মোংলা (বাগেরহাট) প্রতিনিধি: সারাদেশের মতো মোংলাতেও নৌযান শ্রমিকদের ডাকা অনির্দিষ্টকালের কর্মবিরতিতে বন্দরে অচলাবস্থা দেখা দিয়েছে। এতে বন্ধ হয়ে গেছে মোংলা বন্দর থেকে ভারত-বাংলাদেশে নৌ প্রটোকল রুটসহ সারাদেশের নৌপথে পণ্য পরিবহনের কাজ।

নিয়োগপত্র, খোরাকিসহ ১১ দফা দাবিতে শুক্রবার মধ্যরাত থেকে নৌযান শ্রমিক ফেডারেশন এ ধর্মঘট শুরু করে।

বন্দর কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, দুপুর নাগাদ বন্দরে অবস্থানরত অধিকাংশ জাহাজ থেকে পণ্য ওঠানামার কাজ বন্ধ হয়ে গেছে। কর্মবিরতি শুরুর আগ থেকেই বন্দরে অবস্থানরত বিদেশি বাণিজ্যিক জাহাজের সাথে যে সকল নৌযান অবস্থান করছিল সেগুলোতে শনিবার দুপুর পর্যন্ত স্বল্প পরিসরে পণ্য খালাসের কাজ চলেছে। তবে কিছু কিছু জাহাজের সঙ্গে কোনো নৌযান অবস্থান না থাকায় সেসব জাহাজের পণ্য ওঠানামার কাজ বন্ধ রয়েছে। মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষের হারবার মাস্টার কমান্ডার ফখর উদ্দিন বলেন, নৌযান শ্রমিকদের কর্মবিরতির প্রভাব ইতোমধ্যে পড়তে শুরু করেছে। তবে বন্দর জেটি ও কন্টেইনার ইয়ার্ডে অভ্যন্তীরণ কার্যক্রম চলছে।

এদিকে নৌযান শ্রমিকদের এ কর্মবিরতির ফলে বন্দর ব্যবহারকারীসহ শিপিং ব্যবসায়ীরা আর্থিক ক্ষতির সম্মুখীন হতে শুরু করেছেন। মোংলা বন্দর ব্যবহারকারী ও মোংলা বন্দর পৌরসভার মেয়র মো. জুলফিকার আলী জানান, শ্রমিকদের কর্মবিরতির কারণে প্রতিদিন জাহাজ মালিক কর্তৃপক্ষকে ১৫ হাজার মার্কিন ডলার করে আর্থিক ক্ষতির সম্মুখীন হতে হচ্ছে। এতে বহির্বিশ্বে এ বন্দর তথা দেশের সুনাম ক্ষুন্ন হচ্ছে।

উল্লেখ্য, শুক্রবার রাত ১২টা থেকে নৌযান শ্রমিকদের ডাকা ধর্মঘটে রাজধানীর সঙ্গে দক্ষিণাঞ্চলের ৪৩টি নৌপথে নৌযান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। এর আগে ১২ নভেম্বর রাজধানীতে বিক্ষোভ সমাবেশ থেকে ১১ দফা দাবি আদায়ে ২৯ নভেম্বর পর্যন্ত সময় বেঁধে দিয়ে ধর্মঘটের আলটিমেটাম দেয় নৌ-শ্রমিক-কর্মচারীদের সংগঠনগুলো।

Related posts