বুধবার, ২০ নভেম্বর ২০১৯ | ৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

Select your Top Menu from wp menus

মানসম্মত চিংড়ি উৎপাদন ও রপ্তানী বাড়াতে হবে: মৎস্য প্রতিমন্ত্রী

স্টাফ রিপোর্টার: মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী মোঃ আশরাফ আলী খান খসরু বলেছেন, মানসম্মত চিংড়ি উৎপাদন ও রপ্তানী দুটোই বাড়াতে হবে। এই সেক্টরে সরকার বিভিন্ন প্রনোদনা দিয়ে যাচ্ছে। দেশে ইলিশের উৎপাদনে বিপ্লব ঘটেছে।

তিনি বৃহস্পতিবার (১৭ অক্টোবর) বিকেলে বাংলাদেশ ফ্রোজেন ফুড এক্সপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশেন (বিএফএফইএ) খুলনার সম্মেলনকক্ষে চিংড়ি উৎপাদন ও মানসম্পন্ন চিংড়ি রপ্তানী বৃদ্ধি বিষয়ক মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় একথা বলেন।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, চিংড়ি উৎপাদনে আধুনিক পদ্ধতির ওপর জোর দিতে হবে। আমাদের একটাই লক্ষ্য সকল মাছের উৎপাদন আরো বৃদ্ধি করা। এই সেক্টরের সাথে জড়িত সকল সংশ্লিষ্টদের যার যার দায়িত্ব সঠিকভাবে পালন করতে হবে। বৈদেশিক মুদ্রা অর্জনে দ্বিতীয় সম্পদ হলো মাছ। তিনি বলেন, প্রথমে মানসম্পত পোনা উৎপাদন নিশ্চিত করতে হবে। উৎপাদন থেকে শুরু করে খাবার টেবিল পর্যন্ত সকল খাদ্য নিরাপদ রাখতে হবে। দেশ সকল ক্ষেত্রে অভাবনীয় সাফল্য অর্জন করছে। যারা মাছ চাষ করে তাদের সহযোগিতা করতে তিনি সকলের প্রতি আহবান জানান।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের সচিব মোঃ রইছউল আলম মন্ডল, খুলনার বিভাগীয় কমিশনার লোকমান হোসেন মিয়া, মৎস্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক কাজী শামস আফরোজ, বাংলাদেশ মৎস্য গবেষণা ইনস্টিটিউটের মহাপরিচালক ড. মোঃ ইয়াহিয়া মাহমুদ এবং খুলনার ভারপ্রাপ্ত জেলা প্রশাসক ইশরাত জাহান। এতে সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ ফ্রোজেন ফুড এক্সপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশেনের প্রেসিডেন্ট কাজী বেলায়েত হোসেন। ধন্যবাদ জানান বিএফএফইএ’র ভাইস প্রেসিডেন্ট শেখ আব্দুল বাকী। এসময় মৎস্য অধিদপ্তরের কর্মকর্তা, বিএফএফইএ’র সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট, পরিচালকগণ, বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের চেয়ারম্যান, উপব্যবস্থাপনা পরিচালক, পরিচালক, নির্বাহী পরিচালক ও মহাব্যবস্থাপকগণ উপস্থিত ছিলেন।

দুপুরে তিনি খুলনার ডুমুরিয়া বড়ডাঙ্গা চিংড়ি ক্লাস্টার ফার্মিং পরিদর্শন করেন। সন্ধ্যায় প্রতিমন্ত্রী বাগমারা প্রাইমাস সী ফুডস লিমিটেডের হিমায়িত চিড়িং প্রক্রিয়াজাতকরণ কারখানা পরিদর্শন করেন।

Related posts