বৃহস্পতিবার, ২ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ ❙ ১৯ মাঘ ১৪২৯

মধ্যস্বত্বভোগীদের কারণে কৃষকরা প্রকৃত দাম পাচ্ছে না: কৃষিমন্ত্রী

এসবিনিউজ ডেস্ক: কৃষিমন্ত্রী ড. আব্দুর রাজ্জাক জানিয়েছেন, সরকার ৩৬ টাকা কেজি দরে চাল ক্রয় করলেও সংশ্লিষ্ট প্রভাবশালী, মিলার ও সরকারি কর্মকর্তাদের কারণে কৃষকরা প্রকৃত দাম পাচ্ছে না। তবে, শিগগিরই চাল রপ্তানির পরিকল্পনা রয়েছে বলে জানান কৃষিমন্ত্রী।
দুই কোটি ৬০ লাখ টন চাহিদার বিপরীতে দেশে আউশ, আমন এবং বোরো ধান মিলিয়ে এবার ধান উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা দাঁড়িয়েছে প্রায় তিন কোটি ৫০ লাখ টন।
চাহিদার তুলনায় অতিরিক্ত উৎপাদন, ঘোষণা দিয়েও যথাসময়ে সরকার ধান সংগ্রহ না করাসহ নানা কারনে উৎপাদন মূ্ল্েযর চেয়েও বাজারে ধানের দাম কম।
অনেকটা বাধ্য হয়েই কম মূল্যে ধান বিক্রি করছেন কৃষকেরা। ন্যায্য মূল্যে ধান বিক্রি করতে না পেরে বিপাকে পড়েছেন তারা।
চাষীরা বলছেন, বিঘা প্রতি ২০ হাজার খরচ। ধান বিক্রি হচ্ছে ১৮ হাজার টাকা। জনের দাম, সারের দাম দিতে দিতে আমাদের আর কিছু থাকে না।
এদিকে ধানের দাম কম হওয়ায় কৃষকদের হতাশার কথা স্বীকার করে কৃষিমন্ত্রী জানিয়েছেন, ধানের উৎপাদন বেশি হওয়ায় এবং সরকার ৩৬ টাকা কেজি দরে চাল ক্রয় করলেও মধ্যসত্ত্বভোগীদের কারনে কৃষক প্রকৃত দাম পাচ্ছেন না।
মন্ত্রী বলেন, সরকার ৩৬ টাকা দাম দিচ্ছে। কিন্তু চাষী তা পাচ্ছে না। মধ্যস্বত্বভোগী, নেতারা বা সরকারি কর্মকর্তাদের কারণে চাষী এটা পায় না।
পরিস্থিতি সামাল দিতে চাল রপ্তানি ছাড়া আর কোন উপায় দেখছেন না মন্ত্রী। মন্ত্রী বলেন, এখন চাল রপ্তানি করা ছাড়া আর কোনো উপায় দেখছি না। ঝুঁকি আছে। তবুও চেষ্টা করতে হবে। কৃষকদের স্বার্থে ধানের পরিবর্তে বিকল্প শস্য উৎপাদনেরও পরিকল্পনার কথা জানান কৃষিমন্ত্রী।

Related posts