রবিবার, ২২ জানুয়ারি ২০২৩ ❙ ৮ মাঘ ১৪২৯

বৃহস্পতিবার থেকে দোকানপাট ও চলাচলের ওপর বিধি নিষেধ জারি

স্টাফ রিপোর্টার: করোনাভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধে খুলনা জেলার সকল উপজেলা ও মহানগরীতে দোকানপাট, শপিংমল, যানবাহন ও জনসাধারণের চলাচলের ওপর খুলনা জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ হেলাল হোসেন আগামী ১১ জুন (বৃহস্পতিবার) থেকে ২৫ জুন (বৃহস্পতিবার ) পর্যন্ত ১৫ দিনের জন্য দোকানপাট, যানবাহন ও চলাচলের ওপর বিধি নিষেধ জারি করেছেন। বৃহস্পতিবার সকাল সাতটা থেকে এই বিধি নিষেধ কার্যকর হবে।

বিধি নিষেধ অনুযায়ী নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্য, কাঁচাবাজার, মৌসুমী ফলের দোকান ও ফার্মেসি ব্যতীত অন্যান্য দোকানপাট, শপিংমল ও ফুটপাতের দোকান বন্ধ থাকবে।

শারীরিক দূরত্ব বজায় রাখা, হ্যান্ড স্যানিটাইজার ও জীবাণুনাশক ব্যবহার করে নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্যের দোকান ও কাঁচাবাজার প্রতিদিন সকাল সাতটা থেকে বিকাল চারটা পর্যন্ত খোলা থাকবে। তবে কেসিসি সান্ধ্যবাজার ও সোনাডাঙ্গা ট্রাক স্ট্যান্ড সংলগ্ন পাইকারি কাঁচা বাজারের ক্ষেত্রে খুলনা জেলা প্রশাসনের পূর্বের আদেশ বহাল থাকবে। এছাড়া ফার্মেসিও সার্বক্ষণিক খোলা রাখা যাবে। মোটরসাইকেলে আরোহী ব্যতীত অন্য কেউ উঠতে পারবেন না। তবে পরিবারের সদস্যদের ক্ষেত্রে এটি শিথিলযোগ্য থাকবে।

সামাজিক দূরত্ব ও স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করে থ্রি হুইলার যেমন: মাহেন্দ্র, ব্যাটারি চালিত অটো ইত্যাদিতে দুইজন যাত্রীর বেশি যাত্রী বহন করা যাবে না। এছাড়া সকল বাসস্ট্যান্ড থেকে গন্তব্যের উদ্দেশে ছেড়ে যাওয়া ও আসার ক্ষেত্রে যাতায়াত পথে বাসস্ট্যান্ড ব্যবহার করত হবে। যেখানে-সেখানে বাস থামানো যাবে না।

জনসাধারণ অতি জরুরি প্রয়োজন যেমন ওষুধ ক্রয়, চিকিৎসাসেবা, মৃতদেহ দাফন-সৎকার ব্যতীত সন্ধ্যা ছয়টা হতে পরবর্তী দিন সকাল সাতটা পর্যন্ত কোনভাবেই ঘরের বাইরে অবস্থান করতে পারবে না।

ঘরের বাইরে অবস্থানের ক্ষেত্রে মাস্ক পরিধান, শারীরিক দূরত্ব প্রতিপালনসহ অন্যান্য স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করতে হবে।

জরুরি পরিষেবা যেমন ব্যাংক-বীমা, বিদ্যুৎ, পানি, গ্যাস, ফায়ার সার্ভিস, পরিচ্ছন্নতা কার্যক্রম, টেলিফোন ও ইন্টারনেট সেবা এবং কৃষিপণ্য, সার, কীটনাশক, জ¦ালানী, সংবাদপত্র, খাদ্য, শিল্পপণ্য, চিকিৎসা সরঞ্জামাদি, জরুরি ও নিত্য প্রয়োজনীয় পরিবহনের যানবাহন এই আদেশের আওতামুক্ত থাকবে।

খুলনা জেলা ম্যাজিস্ট্রেট এক গণবিজ্ঞপ্তিতে আজ এই আদেশ জারি করেছেন।

Related posts