মঙ্গলবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ | ১৩ আশ্বিন ১৪২৭

Select your Top Menu from wp menus

বিএনপি নেতা আবদুল মান্নানের ইন্তেকাল

বিএনপি জাতীয় নির্বাহী কমিটির ভাইস চেয়ারম্যান, ঢাকা জেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি, বেসামরিক বিমান চলাচল ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের সাবেক প্রতিমন্ত্রী আব্দুল মান্নান ইন্তেকাল করেছেন; ইন্নালিল্লাহি ওয়াইন্না ইলাইহি রাজিউন। তিনি মঙ্গলবার রাত ৯টা ২০মিনিটে রাজধানীর এভারকেয়ার হাসপাতালে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন বলে জানান বিএনপি চেয়ারপারসনের প্রেস উইংয়ের সদস্য শামসুদ্দিন দিদার। বার্ধক্য জনিত কারণে তিনি মারা যান। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিলো ৭৮ বছর। তিনি এক কন্যা সন্তান রেখে গেছেন।
পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, মরহুমের লাশ হাসপাতালের হিমঘরে রাখা হয়েছে। আজ বুধবার বেলা ১১টায় নয়াপল্টনে দলীয় কার্যালয়ের সামনে প্রথম জানাজা। ১২টায় ধানমন্ডি ঈদগাহ মাঠে দ্বিতীয় জানাজা। বিকাল ৪টায় নবাবগঞ্জ কলেজ মাঠে তৃতীয় জানাজা অনুষ্ঠিত হবে। এরপর আজিমপুর কবরস্থানে স্ত্রীর কবরের পাশে দাফন করা হবে।
এদিকে আবদুল মান্নানের মৃত্যুতে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান ও মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য আমান উল্লাহ আমানসহ দলীয় নেতৃবৃন্দ শোক প্রকাশ করেছেন।
বিএনপি চেয়ারপাসনের প্রেস উইংয়ের সদস্য শায়রুল কবির খান জানান, বার্ধক্যজনিত কারণে নানা জটিল রোগে ভুগছিলেন বিএনপির এই নেতা। গত রোববার (৩ আগস্ট) বেশি অসুস্থ হলে তাকে এভারকেয়ার হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল। তার স্ত্রী নিলুফার মান্নান ৩ বছর আগে মারা গেছেন। একমাত্র মেয়ে ব্যারিস্টার মেহনাজ মান্নান ও তার স্বামী বিএনপির আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক ব্যারিস্টার নাসির উদ্দিন অসীম শনিবার (২ আগস্ট) লন্ডন থেকে দেশে আসেন।
আব্দুল মান্নান বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের এমডি ছিলেন। অবসরে যাওয়ার পর তিনি বিএনপির প্রার্থী হিসেবে ঢাকা-২ আসন থেকে ১৯৯১, ফেব্রুয়ারি ১৯৯৬, জুন ১৯৯৬ ও ২০০১ সালের জাতীয় নির্বাচনে অংশ নিয়ে পরপর ৪বার সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছিলেন। তিনি ১৯৯১ সাল থেকে ৯৬ সাল পর্যন্ত বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। ২০১০ সালে বিএনপির ঢাকা জেলা শাখার সভাপতি নির্বাচিত হয়েছিলেন। সর্বশেষ তিনি বিএনপির কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির ভাইস চেয়ারম্যান ছিলেন।

Related posts