সোমবার, ৯ ডিসেম্বর ২০১৯ | ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

Select your Top Menu from wp menus

বিএনপির প্রশিক্ষণবিষয়ক সম্পাদকসহ আটক ৩

এসবিনিউজ ডেস্ক: বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির প্রশিক্ষণবিষয়ক সম্পাদক এবিএম মোরারফ হোসেনসহ দলটির তিন নেতাকর্মীকে আটক করেছে পুলিশ। শুক্রবার দুপুর ১২টার দিকে জাতীয় প্রেসক্লাবে এক আলোচনা সভায় যোগদান শেষে বের হওয়ার পথে তাদের আটক করে পুলিশ। আটক হওয়া অপর দুজন হলেন- অ্যাডভোকেট আলম ও অ্যাডভোকেট তৌহিদ।

শাহবাগ থানার ওসি আবুল হাসান জানান, গত মঙ্গলবার রাজধানীর হাইকোর্ট এলাকায় গাড়ি ভাঙচুর ও পুলিশের ওপর হামলার ঘটনায় তিনজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

এ বিষয়ে বিএনপি চেয়ারপারসনের প্রেস উইংয়ের সদস্য শায়রুল কবির খান বলেন, আটকের খবর শুনেছি। তবে এখনও বিস্তারিত কিছু জানি না। খোঁজ নিয়ে পরে জানাচ্ছি।

কারাবন্দি বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে গেল মঙ্গলবার (২৬ নভেম্বর) দুপুর ১২টার দিকে বিএনপির নেতাকর্মীরা হাইকোর্টের সামনে অবস্থান নেন। দুপুর ২টার দিকে পুলিশ তাদের সরিয়ে দিতে লাঠিচার্জ ও বেশ কয়েক রাউন্ড টিয়ার শেল নিক্ষেপ করে।

পরে পুলিশের ধাওয়ায় নেতাকর্মীরা পালিয়ে যাওয়ার সময় রাস্তায় গাড়ি ভাঙচুর করে। এ সময় পানিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের একটি গাড়িও ভাঙচুর করা হয়। গাড়ি ভাঙচুর করতে করতে বিক্ষুব্ধ কর্মীরা সটকে পড়ে।

এতে কিছু সময়ের জন্য ওই এলাকা যেন রণক্ষেত্রে পরিণত হয়। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ লাঠিচার্জ ও কয়েক রাউন্ড টিয়ারশেল নিক্ষেপ করলে নেতাকর্মীরা ছত্রভঙ্গ হয়ে যায়।

এ ঘটনায় সরকারি কাজে বাধা দেয়া, অগ্নিসংযোগ, গাড়ি ভাঙচুর ও নাশকতার অভিযোগ এনে ওইদিনই শাহবাগ থানায় একটি মামলা করে পুলিশ। মামলার এজাহারে ফখরুল-আব্বাস-গয়েশ্বরসহ অন্তত ২৮ জনের নাম উল্লেখ করে মোট ৫০০ জন অজ্ঞাতপরিচয় ব্যক্তিকে আসামি করা হয়।

মামলা দায়েরের পরই নেতাকর্মীদের ব্যাপক ধরপাকড় চলছে। ইতোমধ্যে ভাইস-চেয়ারম্যান মেজর (অব.) হাফিজ উদ্দিন, যুগ্ম-মহাসচিব খায়রুল কবির খোকন, মুক্তিযোদ্ধা দলের সভাপতি ইশতিয়াক আজিজ উলফাত ও ডাকসু নির্বাচনে ভিপি পদে ছাত্রদলের মনোনয়নে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করা মোস্তাফিজুর রহমানসহ বেশ কয়েকজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

 

 

Related posts