মঙ্গলবার, ১৩ এপ্রিল ২০২১ | ৩০ চৈত্র ১৪২৭

Select your Top Menu from wp menus

‘বাল্যবিয়ে বন্ধে গণসচেতনতা বৃদ্ধি করতে হবে’

রূপসা (২৮ ফেব্রুয়ারি) প্রতিনিধি: বাল্যবিয়ে বন্ধে ভূমিকা পালন করা প্রতিটি নাগরিকের দায়িত্ব। আশেপাশে বাল্যবিয়ের তোড়জোড় দেখতে পেলে শুরুতেই বিষয়টি বন্ধে পদক্ষেপ গ্রহণ করা জরুরী। প্রয়োজনে এ বিষয়ে স্থানীয় প্রশাসন এবং জনপ্রতিনিধিদের সহযোগিতা নিতে হবে। প্রশাসন বাল্যবিয়ে বন্ধে তৎপর। গোপনে এবং তঞ্চকতার মাধ্যমে বাল্যবিয়ের উদ্যোগ প্রতিহত করতে জনগণই সবচেয়ে বড় ভূমিকা পালন করতে পারেন। আর এ জন্যে গণসচেতনতা সৃষ্টির উদ্যোগকে আরও বেগবান করতে হবে।
রোববার (২৮ ফেব্রুয়ারি) রূপসায় উপজেলা পর্যায়ের এ্যাডভোকেসি সভায় বক্তারা এ কথা বলেন। উপজেলার নারী নির্যাতন ও বাল্যবিয়ে প্রতিরোধ প্লাটফর্ম-এর সদস্যরা ছাড়াও সরকারি কর্মকর্তা, জনপ্রতিনিধি, নারীনেত্রীগণ এ সভায় অংশগ্রহণ করেন। রূপসা উপজেলার বিআরডিবি মিলনায়তনে রোববার এই সভা অনুষ্ঠিত হয়।
রূপসা প্লাটফর্মের আহ্বায়ক রূপসা উপজেলা পরিষদের ভাইস-চেয়ারম্যান ফারহানা আফরোজ মনা’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ সভার সমাপনী পর্বে বক্তৃতা করেন উপজেলা পল্লী উন্নয়ন অফিসার তারেক ইকবাল আজিজ, মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা তাহিরা খাতুন, প্লাটফর্মের যুগ্ম-আহবায়ক নারীনেত্রী মাধুরী সরকার, কাজদিয়া উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সহকারী প্রধান শিক্ষক বিশ^নাথ ভট্টাচার্য্য প্রমুখ।
সভায় অংশগ্রহণকারীরা বিভিন্ন ইস্যু নিয়ে আলোচনা শেষে বাল্যবিয়ে প্রতিরোধে উপজেলার নৈহাটি ইউনিয়নে একজন স্থায়ী ম্যারেজ রেজিস্ট্রার নিয়োগের জন্য উপজেলা নির্বাহী অফিসারের সাথে এ্যাডভোকেসি করার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেন।
উল্লেখ্য, ইউএসএইড এবং ইউকেএইড-এর আর্থিক সহায়তায় কাউন্টারপার্ট ইন্টারন্যাশনাল কর্তৃক বাস্তবায়নাধীন প্রোমোটিং এ্যাডভোকেসি এন্ড রাইটস (পার) কর্মসূচির আওতায় খুলনাসহ চারটি জেলায় রূপান্তর-এর নেতৃত্বে নারীর প্রতি সহিংসতা প্রতিরোধে সামাজিক সংগঠনসমূহকে উদ্বুদ্ধকরণ প্রকল্পের পক্ষ থেকে এই সভার আয়োজন করা হয়।

Related posts