বৃহস্পতিবার, ১ অক্টোবর ২০২০ | ১৬ আশ্বিন ১৪২৭

Select your Top Menu from wp menus

বার্সেলোনার অনুশীলনে ফিরলেন মেসি

স্পোর্টস ডেস্ক: বার্সেলোনার পূর্ণ অনুশীলনে ফিরেছেন লিওনেল মেসি। ক্লাব ছাড়তে ব্যর্থ হওয়ার পর এই প্রথমবারের মত তিনি পুরো দলের সাথে অনুশীলনে নেমেছেন। ৩৩ বছর বয়সী এই আর্জেন্টাইন লা লিগার করোনাভাইরাস প্রোটোকল অনুযায়ী সোম ও মঙ্গলবার একাই অনুশীলন করেছেন। এরপর বুধবার থেকে নতুন কোচ রোনাল্ড কোম্যানের অধীনে পুরো দলের সাথে পূর্নাঙ্গ অনুশীলন করেছেন ক্লাবের এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে মেসি ছাড়াও এদিন মূল দলে ফিরেছেন ফিলিপ কুটিনহো, সার্জিও বাসকুয়েট, ফ্রেংকি ডি জং ও আনসু ফাতি।
বার্সা সভাপতি জোসেপ মারিয়া বার্তোমেউর বেঁধে দেয়া ৭০০ মিলিয়ন রিলিজ ক্লজের ফাঁদে পড়ে এবারের মৌসুমে মেসি ক্লাব ছাড়তে ব্যর্থ হন। এর আগে শুক্রবার গোলডটকমের সাথে এক সাক্ষাতকারে মেসি বলেছিলেন ক্লাব ছাড়তে না পারলেও যতদিন থাকবেন বার্সেলোনার হয়ে সেরাটাই দেবার চেষ্টা করবেন। এ সময় তিনি কথা না রাখায় ক্লাব সভাপতি জোসেপ মারিয়া বার্তোমেউকে একহাত নিয়েছেন। চুক্তির বিষয়ে অনেক আগে থেকেই বার্তোমেউকে বলেছিলেন মেসি। সভাপতিও তখন তাকে আশ্বস্ত করে বলেছিলেন মৌসুম শেষে সব কিছুর অবসান হবে। কিন্তু কার্যত মেসির সাথে ক্লাব ছাড়ার বিষয়ে কোন কথাই রাখা হয়নি, যে কারণে সভাপতির সাথে সম্পর্কের চরম অবনতি হয়েছে আর্জেন্টাইন সুপারস্টারে। ৩৩ বছর বয়সী মেসি বেশ কিছুদিন ধরেই বার্সেলোনায় অস্বস্তিতে ভুগছিলেন। যে কারনে জুনে চুক্তি শেষ হয়ে যাবার পর সেটা আর না বাড়িয়ে ক্লাব ছাড়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন।
বার্সেলোনায় নতুন করে মেসির এই ফিরে আসাটা মোটেই সহজ ছিল না। বিশেষ করে বেশ কিছু সতীর্থকে আসন্ন মৌসুমে দলে পাচ্ছেন না বার্সার এই অধিনায়ক। সেই বিষয়টিও তাকে অস্বস্তিতে ফেলেছে। বার্সেলোনায় মেসির ঘনিষ্ঠ বন্ধু লুইস সুয়ারেজ, আরতুরো ভিডালের বিদায় প্রায় নিশ্চিতই বলা যায়। এদের দুজনের সাথে ইতালিয়ান সিরি-এ জায়ান্ট জুভেন্টাস ও ইন্টার মিলানের আলোচনা চলছে।
গত মাসে কোচ হিসেবে নিয়োগ পাওয়া কোম্যানের অধীনে এটাই ক্যারিয়ারে মেসির প্রথম অনুশীলন হতে যাচ্ছে। কোম্যান তার প্রথম সংবাদ সম্মেলনে বলেছিলেন তিনি শুধুমাত্র সে সমস্ত খেলোয়াড়কেই দলে চান যারা এখানে থাকতে চায় এবং ক্লাবের জন্য সবকিছু দিতে প্রস্তুত আছে।
গত সপ্তাহে মেসি করোনাভাইরাস পরীক্ষার পাশাপাশি কোম্যানের প্রাক-মৌসুম অনুশীলনে অংশ নিতে চায়নি। ঐ সময় মেসির আইনজীবী বলেছিলেন এই মুহূর্তে কোন ধরনের কার্যক্রমে অংশ নেয়ার অর্থ হচ্ছে ক্লাবের সাথে যে লড়াই চলছে সেটা ক্ষতিগ্রস্থ হওয়া। কিন্তু মেসি বার্সেলোনার বিপক্ষে কোন ধরনের আইনি পদক্ষেপ গ্রহণে অস্বীকৃতি জানিয়েছেন। যদিও ভবিষ্যতে দীর্ঘমেয়াদে তার বার্সেলোনায় থাকা নিয়ে যথেষ্ট সন্দেহ সৃষ্টি হয়েছে।
শনিবার তৃতীয় বিভাগের দল জিমন্যাস্টিক তারাগোনার বিপক্ষে প্রাক-মৌসুম প্রীতি ম্যাচে হয়তো তাকে মাঠে দেখা যেতে পারে। তবে চারদিন পর জিরোনার বিপক্ষে তার মাঠে ফেরা প্রায় নিশ্চিত। গত মাসে চ্যাম্পিয়নস লিগের কোয়ার্টার ফাইনালে বায়ার্ন মিউনিখের কাছে ৮-২ গোলে বিধ্বস্ত হবার পর এই প্রথম মেসি বার্সেলোনার জার্সি গায়ে মাঠে নামতে যাচ্ছেন। আগামী ২৭ সেপ্টেম্বর থেকে ভিয়ারেলের বিপক্ষে লা লিগার নতুন মৌসুম শুরু করতে যাওয়া বার্সেলোনা নিজেদের মাঠে ফিরিয়ে আনার জন্য অতিরিক্ত দুই সপ্তাহ সময় বেশী পেয়েছে।

Related posts