শনিবার, ১১ জুলাই ২০২০ | ২৬ আষাঢ় ১৪২৭

Select your Top Menu from wp menus

‘নির্বাচন কমিশন নিয়ে বিএনপি হতাশ ও ক্ষুব্ধ’

এসবিনিউজ ডেস্ক : নতুন প্রধান নির্বাচন কমিশনারের (সিইসি)নেতৃত্বে সুষ্ঠু, অবাধ, নিরপেক্ষ ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচন সম্ভব হবে না বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি বলেছেন, নতুন নির্বাচন কমিশন নিয়ে বিএনপি হতাশ ও ক্ষুব্ধ,এই কমিশন প্রধানমন্ত্রীর পছন্দেরই প্রতিফলন।

মঙ্গলবার রাতে গুলশানে বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার রাজনৈতিক কার্যালয়ে বৈঠক শেষে এক সংবাদ সম্মেলনে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর এসব কথা বলেন। বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। এ সময় বিএনপি ও জোটের সিনিয়র নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল বলেন, ‘আমরা চেয়েছিলাম যাদেরকে নিয়ে নির্বাচন কমিশন গঠন করা হবে, তাঁরা হবেন সৎ, দল নিরপেক্ষ, দক্ষ, সাহসী, প্রজ্ঞাবান, কর্ম অভিজ্ঞতাসম্পন্ন এবং সকলের নিকট গ্রহণযোগ্য।

এই উদ্দেশ্যেই বিএনপির চেয়ারপারসন ও ২০ দলীয় জোট নেত্রী দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া গত ১৮ নভেম্বর সংবাদ সম্মেলন করে ১৩ দফা প্রস্তাব জনগণের সামনে উপস্থাপন করেন। দেশনেত্রীর এই যৌক্তিক প্রস্তাবে দেশবাসী উৎসাহিত হয় এবং যথার্থই নিরপেক্ষ,যোগ্য ও সাহসী একটি নির্বাচন কমিশন গঠিত হবে বলে আশা করে।

মির্জা ফখরুল আরো বলেন, ‘৬ ফেব্র“যারি শেষ মুহূর্তে অত্যন্ত দ্রুততার সঙ্গে সার্চ কমিটির প্রস্তাবিত ১০ নাম থেকে একজনকে প্রধান নির্বাচন কমিশনার ও ৪ জনকে নির্বাচন কমিশনার পদে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। সকল মহল থেকে দাবি ছিল সার্চ কমিটি কর্তৃক বাছাইকৃত এই ১০ জনের নাম জনসমক্ষে প্রকাশ করা হবে। তাদের জীবন বৃত্তান্ত ও কর্ম অভিজ্ঞতা সম্পর্কে প্রয়োজনীয় তথ্য সরবরাহ করা হবে। এ পন্থা অনুসরণ করা হলে প্রক্রিয়াটি কিছুটা হলেও স্বচ্ছতা পেত। কিন্তু তা করা হয়নি। আমরা নিরাশ ও হতাশ হয়েছি।’

 

Related posts