বৃহস্পতিবার, ২৩ জানুয়ারি ২০২০ | ৯ মাঘ ১৪২৬

Select your Top Menu from wp menus

‘দুর্নীতিবাজদের সামাজিকভাবে বয়কটের আহ্বান’

স্টাফ রিপোর্টার: নানা আয়োজনের মধ্যদিয়ে সোমবার (৯ ডিসেম্বর) খুলনায় আন্তর্জাতিক দুর্নীতিবিরোধী দিবস পালিত হয়। সকালে নগরীর শহিদ হাদিস পার্কে জাতীয় সংগীতের সাথে সাথে জাতীয় পতাকা উত্তোলনের মাধ্যমে দিবসটির উদ্বোধন করেন খুলনা সিটি কর্পোরেশনের মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক। এসময় দুর্নীতি দমন কমিশনের  পতাকা উত্তোলন করেন দুর্নীতি দমন কমিশনের খুলনা বিভাগীয় পরিচালক আব্দুল গফফার। দিবসটির এবারের প্রতিপাদ্য ‘আমরা দুর্নীতির বিরুদ্ধে একতাবদ্ধ’।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় সিটি মেয়র বলেন, কেউ দুর্নীতি করলে তাকে সামাজিকভাবে বয়কট করতে হবে। দুর্নীতিবিরোধী কার্যক্রম যেন কেবল অনুষ্ঠানের মধ্যে সীমাবদ্ধ না থাকে প্রধানমন্ত্রী দুর্নীতির বিরুদ্ধে যে জিরো টলারেন্স নীতি ঘোষণা করেছেন তা যেন প্রতিটি অফিসেই বাস্তবায়িত হয়। এজন্য প্রত্যেককেই যার যার দায়িত্ব সততা ও ন্যায়পরায়নতার সাথে পালন করতে হবে। সেবার মানসিকতা নিয়ে কাজ করতে হবে অন্যথায় ২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত বাংলাদেশ গড়ার যে স্বপ্ন আমরা দেখছি তা পিছিয়ে যাবে।

প্রধানমন্ত্রী দুর্নীতিগ্রস্ত দলীয় নেতাকর্মীদেরও ছাড় দিচ্ছেন না উল্লেখ করে তালুকদার আব্দুল খালেক বলেন, বঙ্গবন্ধু আজীবন ত্যাগ স্বীকারের মধ্যদিয়ে যে সোনার বাংলার স্বপ্ন দেখেছিলেন সেখানে দুর্নীতির কোন চিহ্ন থাকতে পারে না। সরকারি কর্মচারীদের বেতন ১২৩ শতাংশ পর্যন্ত বৃদ্ধি করা হয়েছে। পাশাপাশি জনসাধারণের জীবনমানের অভূতপূর্ণ উন্নতি ঘটেছে, এরপরও কেউ দুর্নীতি করলে তাকে সামাজিকভাবে বয়কট করতে হবে।

 জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ হেলাল হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরও বক্তৃতা করেন বিভাগীয় কমিশনার ড. মুঃ আনোয়ার হোসেন হাওলাদার, জেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির সেক্রেটারি মোঃ আশরাফুজ্জামান ও খুলনা বার কাউন্সিলের সভাপতি অ্যাডভোকেট সাইফুল ইসলাম প্রমুখ। এসময় বিভিন্ন সরকারি দপ্তরের সকল পর্যায়ের কর্মকর্তা-কর্মচারী উপস্থিত ছিলেন।

পরে শহিদ হাদিস পার্কের সামনে সকলে দুর্নীতিবিরোধী মানববন্ধনে অংশগ্রহণ করেন। দিবসটি পালন উপলক্ষে সন্ধ্যায় হাদিস পার্কে দুর্নীতিবিরোধী সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও তথ্যচিত্র প্রদর্শনীর আয়োজন করা হয়।

Related posts