শুক্রবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০ | ১০ আশ্বিন ১৪২৭

Select your Top Menu from wp menus

জিভে পানি আনা ৬ ভর্তা

এসবিনিউজ ডেস্ক: করোনার এই সময়ে অনেকের বাড়িতেই সাহায্যকারী নেই। হয় তারা দেশে চলে গেছে, কিংবা সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হিসাবে আপনি নিজেই তাকে আসতে নিষেধ করেছেন। এ অবস্থায় আপনার উপরও তো কাজের চাপ বেড়ে গেছে। আগের মতো হরেক পদের তরকারি রান্না করতে পারছেন না। চিন্তা কি, ভর্তা করে নিন। এতে মুখের রুচি যেমন বাড়বে, আপনার পরিশ্রমও অনেক কমে যাবে। আজ আপনাদের জন্য নিয়ে এসেছি ৬ পদের মুখরোচক ভর্তার রেসিপি।

১. রুই মাছের ভর্তা

উপকরণ

মাছ-পিঠের দিককার মাছ ৪ টুকরা।

পেঁয়াজ কুচি- মাঝারি সাইজের এক বাটি।

রুসুন কুচি- দুই চা চামচ।

কাঁচামরিচ- ৭/৮টি

প্রস্তুত প্রণালী- মাছগুলো ভালো করে ধুয়ে নেয়ার পর পরিমাণ মতো লবন ও গুড়ামরিচ দিয়ে মেখে নিন। এরপর ফ্রাইপ্যান বা তাওয়ায় মাঝারি আঁচে ভেজে নিন। অত কড়া ভাজার দরকার নেই। এরপর মাছ ভাজির তেলের মধ্যেই কাঁচামরিচগুলো দিয়ে ভালো করে ভেজে নিন। এরপর সেগুলো উঠিয়ে পেঁয়াজ কুচিগুলো দিয়ে ভালো করে ভেজে নিন। তবে খেয়াল রাখবেন একেবারে মচমচে হয়ে যেন না যায়। এরপর মাছের কাঁটাগুলো সরিয়ে নিন। একটা বাটিতে ভাজা মরিচ আর পেয়াজগুলো ঢেলে লবন দিয়ে ভালোভাবে চটকে নিন। এরপর এর সঙ্গে মাছ মিশিয়ে ভালো করে মেখে নিন। ব্যস, হয়ে গেল মজাদার মাছ ভর্তা। শীতকালে এর সঙ্গে ধনেপাতা কুচি যুক্ত করতে পারেন।

২. মসুর ডালের ভর্তা

উপকরণ-

সেদ্ধ করে রাখা মসুর ডাল- ১ কাপ

পেঁয়াজ কুঁচি- ১/২ চা চামচ

কাঁচামরিচ কুঁচি- ২ চা চামচ

সরিষার তেল- ২ চা চামচ

লবণ- পরিমাণমতো

প্রস্তুত প্রণালী: একটা কড়াই বা স্যসপ্যান চুলোতে বসান। এতে তেল দিয়ে মরিচ ও পেঁয়াজ কুচিগুলো দিয়ে নাচতে থাকুন। বাদামি হয়ে আসলে সিদ্ধ ডাল ও লবন দিয়ে দিন। বেশ কিছুক্ষণ নাড়াচাড়া করে নামিয়ে নিন। ব্যস হয়ে গেল মজাদার ডাল ভর্তা। এই ভর্তা আপনি ফ্রিজে রেখে বেশ কিছুদিন খেতে পারবেন।

আর আপনি চাইলে হাতে ডলেও এই ভর্তা করতে পারবেন।

৩. মিষ্টি কুমড়া ভর্তা

উপকরণ

মিষ্টি কুমড়া টুকরো করে কাটা- ২ কাপ

পেঁয়াজ কুঁচি- ২ চা চামচ

ভাজা শুকনো মরিচ- ২টি

লবণ- স্বাদ অনুযায়ী

সরিষার তেল- ২ চা চামচ

প্রস্তুত প্রণালী- প্রথমে মিষ্টি কুমড়া সিদ্ধ করে নিন। চাইলে কুমড়ো চাক করে ভেজেও নিতে পারেন। এটা আপনার রুচি। এরপর সেদ্ধ বা ভাজা কুমড়া পেঁয়াজ, মরিচ, লবণ ও সরিষার তেল দিয়ে মাখিয়ে নিলেই তৈরি হয়ে যাবে মজাদার কুমড়া ভর্তা।

৪. পেঁপে ভর্তা

উপকরণ

কাঁচা পেঁপে- ২৫০ গ্রাম

কাঁচামরিচ- ৩/৪টি

পেঁয়াজ কুঁচি- ১ টেবিল চামচ

সরিষার তেল- ২ চা চামচ

প্রস্তুত প্রণালী- প্রথমে পেঁপে চাক চাক করে কেটে সেদ্ধ করে নিন অথবা ভাপিয়ে নিন। তারপর অন্য একটি প্যানে সরিষার তেল গরম করে তাতে কালোজিরা ফোঁড়ন দিয়ে পেঁয়াজ কুঁচি ও মরিচ হালকা করে ভেজে নিন। এবার তাতে পেঁপে দিয়ে ভালোভাবে নাড়তে থাকুন এবং লবণ দিয়ে দিন। ঘুঁটনি দিয়ে পেঁপে ম্যাশড করে ফেলুন। ব্যস, মজাদার পেঁপে ভর্তা রেডি।

আপনি চাইলে এই ভর্তা হাতে ডলেও করতে পারেন।

৫. পটল ভর্তা

উপকরণ

পটল- ৫টি

রসুন কোঁয়া- ৩টি

কাঁচামরিচ কুঁচি- ৩ চা চামচ

লবণ- স্বাদ অনুযায়ী

প্রস্তুত প্রণালী- প্রথমে পটলগুলো ছোট ছোট করে কেটে লবণ দিয়ে সেদ্ধ করে নিন। এবার শুকনো প্যানে টেলে নেওয়া রসুন ও মরিচের সাথে ব্লেন্ডারে অথবা পাটায় বেটে নিয়ে পটল ভর্তা বানিয়ে ফেলুন।

৬. ঢেঁড়স ভর্তা

উপকরণ

ঢেঁড়স- ৫টি

কাঁচামরিচ কুঁচি- ১ চা চামচ

পেঁয়াজ কুঁচি- ২ চা চামচ

লবণ- পরিমাণমতো

সরিষার তেল- সামান্য

প্রস্তুত প্রণালী- প্রথমে ঢেঁড়স সেদ্ধ করে নিয়ে তাতে মরিচ, পেঁয়াজ, লবণ ও সরিষার তেল মিশিয়ে হাত দিয়েই মাখিয়ে ফেলুন। খুব সহজেই এবং অল্প সময়ে ঢেঁড়স ভর্তা তৈরি হয়ে গেলো।

Related posts