মঙ্গলবার, ১৫ জুন ২০২১ | ১ আষাঢ় ১৪২৮

Select your Top Menu from wp menus

চলতি বছরেই শুরু হবে কয়রায় টেকসই বেঁড়িবাঁধের কাজ: বাবু এমপি

কয়রা (খুলনা) প্রতিনিধি: সাতক্ষীরা পানি উন্নয়ন বোর্ডের ১৪/১ ও ২ নং পোল্ডারের খুলনার কয়রা উপজেলার উত্তর ও দক্ষিণ বেদকাশি ইউনিয়নে টেকসই বাঁধের কার্যক্রম শুরু হবে চলতি বছরের নভেম্বরে। খুলনা-৬ এর জাতীয় সংসদ সদস্য আলহাজ¦ মোঃ আকতারুজ্জামান বাবু শুক্রবার (৪ জুন) কয়রার উত্তর বেদকাশির ইয়াসে বিধ্বস্থ গাতীর ঘেরী গ্রামের বেঁড়িবাঁধ পরিদর্শনকালে স্থানীয় সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে একথা বলেন। এসময় বিধ্বস্থ বাঁধের পাশে উপস্থিত পরিকল্পণা কমিশনের যুগ্ম প্রধান সেচ অনু বিভাগ এর মোঃ এনামুল হক, পানি সম্পদ মন্ত্রণালয়ের পরিকল্পনা কমিশনের উপ সচিব একে এম আবুল কালাম আজাদ, অর্থ মন্ত্রণালয়ের (আইএমইডি) পরিচালক (উপসচিব) মোঃ শাহাদাৎ হোসাইন, পানি সম্পদ মন্ত্রণালয়ের উপসচিব মোঃ লুৎফর রহমান, পানি উন্নয়ন বোর্ডের দক্ষিণপশ্চিমাঞ্চল খুলনার প্রধান প্রকৌশলী মোঃ রফিকউল্লাহ ও খুলনার তত্তাবদায়ক প্রকৌশলী আবুল হোসেন উপস্থিত ছিলেন। সাংবাদিকদের অপর এক প্রশ্নের জবাবে পরিকল্পনা কমিশনের যুগ্ম প্রধান মোঃ এনামুল হক জানান, দেশের দক্ষিণ পশ্চিমাঞ্চেলের সাতক্ষীরা পানি উন্নয়ন বোর্ডের ১৪/১ ও ১৫ নং পোল্ডারের বেঁড়ি বাঁধ ঘনঘন দূর্যোগের কারনে বিধ্বস্থ হচ্ছে। তিনি বলেন, চলতি বছরেই এ দুটি পোল্ডারে শত শত কোটি টাকা ব্যয়ে টেকসই বেঁড়িবাঁধ নির্মাণের পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে এবং যার কাজ বর্ষা মৌসুমের পরেই শুরু হবে। এদিকে উত্তর ও দক্ষিণ বেদকাশি ইউনিয়নের বানভাসি বেঁড়িবাঁধে অবস্থানরত ক্ষতিগ্রস্থ একাধিক ব্যক্তির প্রশ্নের জবাবে সংসদ সদস্য জানান, দেশের দক্ষিণ পশ্চিম উপক’লীয় অঞ্চলে বেঁড়িবাঁধ নির্মানে চলতি বাজেটে সরকার সর্বোচ্চ বরাদ্দ দিয়েছেন। তিনি বলেন, দীর্ঘদিন সাতক্ষীরা পানি উন্নয়ন বোর্ডের কয়রা উপজেলার ১৪/১-২ নং পোল্ডারে পাশ^বর্তী শ্যামনগর ও আশাশুনির চেয়ে অনেক কম বরাদ্দ হতো। কিন্তু চলতি বছরের বরাদ্দে ১৪/১-২ নং পোল্ডারে সবচেয়ে বেশি অর্থ বরাদ্দ পাওয়া গেছে এবং আগামী ৩ বছরের মধ্যে কয়রার ১২০ কিলোমিটার বেঁড়িবাঁধে বেশিরভাগ বাঁধ টেকসই করা হবে। পরিদর্শনকালে সংসদ সদস্যের সাথে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন কয়রা থানা অফিসার ইনচার্জ মোঃ রবিউল হোসেন, উপজেলা আওয়ামীলীগের ডাঃ ফজলুর রহমান, হারুন অর রশীদ, জাফরুল ইসলাম পাড়, এসএম বাহারুল ইসলাম, অধ্যক্ষ অদ্রিশ আদিত্য মন্ডল, ছাত্রলীগের আবু সাইদ খান, মোঃ শরিফুল ইসলাম টিংকু, আমিনুল হক বাদলসহ ইউপি চেয়ারম্যান সরদার নুরুল ইসলাম, ও স্থানীয় আওয়ামীলীগ নেতা খায়রুল আলম, এ্যাডঃ আরাফাত হোসেন, গনেষ মন্ডল, সমরেস চন্দ্র সরকার, আছাদুজ্জামান বুলবুল, বাবু হরসিৎ মন্ডল, জাকারিয়া, শামীম প্রমুখ।

Related posts