মঙ্গলবার, ১৩ এপ্রিল ২০২১ | ৩০ চৈত্র ১৪২৭

Select your Top Menu from wp menus

গরিব মানুষদের অন্ধত্ব দূর করতে চাই : ডা. মহিউদ্দিন

স্টাফ রিপোর্টার: আদ্-দ্বীন ওয়েলফেয়ার সেন্টারের নির্বাহী পরিচালক ডা. শেখ মহিউদ্দিন বলেছেন, আমি গরিব মানুষদের অন্ধত্ব দূর করতে চাই। বর্তমানে দেশে সাত লাখ ছানি পড়া রোগী আছেন, এদের ক্যাটারগ অপারেশন করতে না পারায় প্রতিবছর আরও এক লাখ করে ছানি রোগী বাড়ছে। তিনি আরও বলেন, আদ্-দ্বীন বছরে ১০ হাজার মানুষের চোখে বিনামূল্যে ছানি অপারেশন করবে।

শুক্রবার (১৯ জানুয়ারি) বেলা সাড়ে ১১টায় বোয়ালিয়া ঘাট মাধ্যমিক বিদ্যালয় মাঠে আদ্-দ্বীন মাইক্রোফাইনান্স প্রোগ্রামের উদ্যোগে বিনামূল্যে ছানি রোগী অপারেশন ও শীতার্তদের মধ্যে লেপ বিতরণ অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা জানান।

উল্লেখ্য, অসহায় গরিব মানুষের ছানি অপারেশনের লক্ষ্যে আদ্-দ্বীন পরিবারের সাড়ে পাঁচ হাজার কর্মী ছয়দিনের বেতন দিয়েছেন। এছাড়াও কর্মীদের বেতন বাড়লে প্রথম মাসের উদ্বৃত্ত বেতন এই মহৎ কাজে ব্যয় করতে সম্মত হয়েছেন। আগামীতে এভাবেই নিজেদের অর্থায়নে ছানি অপারেশন কার্যক্রম পরিচালনা করা হবে।

আদ্-দ্বীন ওয়েলফেয়ার সেন্টারের ভাইস চেয়ারম্যান অধ্যাপক আবেদ আলীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন এমআরএ এক্সিকিউটিভ ভাইস চেয়ারম্যান অমলেন্দু মুখার্জী।

অনুষ্ঠান শেষে প্রধান অতিথি অমলেন্দু মুখার্জী ৪০টি লেপ বিতরণ করেন। এ সময় প্রধান অতিথি তার বক্তব্যে বলেন, দেশে ৭৯৮টির মতো এনজিও রয়েছে। এর মধ্যে প্রথম ৫০ এর মধ্যে আদ্-দ্বীন জায়গা করে নিয়েছে।

পরে যশোর পুলেরহাটে আদ্-দ্বীন সকিনা মেডিকেল কলেজের হলরুমে আদ্-দ্বীন ওয়েলফেয়ার সেন্টারের বার্ষিক কর্মী সমাবেশ ও বৃত্তি প্রদান অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। এখানে ১৪৬ জন কৃতি শিক্ষার্থীকে মেধাবৃত্তি প্রদান করা হয়।

এখানে আদ্-দ্বীন ওয়েলফেয়ার সেন্টারের ভাইস চেয়ারম্যান অধ্যাপক আবেদ আলীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন এমআরএ অ্যাক্সিকিউটিভ ভাইস চেয়ারম্যান অমলেন্দু মুখার্জী। বিশেষ অতিথি ছিলেন আদ্-দ্বীন ওয়েলফেয়ার সেন্টারের নির্বাহী পরিচালক ডা. শেখ মহিউদ্দিন ও পরিচালক ফজলুল হক প্রমুখ। ডা. শেখ মহিউদ্দিন বলেন, আদ্-দ্বীন ওয়েলফেয়ার সেন্টারের সহযোগিতায় অনেক এতিম-অসহায় বিনা খরচে মেডিকেল পড়তে পারছে।

মহান সৃষ্টিকর্তার ইচ্ছায় এটা সম্ভব হয়েছে। এ অবশ্যই আদ্-দ্বীন ওয়েলফেয়ার কর্মীদের জন্য গর্বের বিষয়।

 

Related posts