বৃহস্পতিবার, ২৬ জানুয়ারি ২০২৩ ❙ ১১ মাঘ ১৪২৯

গণমাধ্যম ঘুমন্ত জাতিকে জাগিয়ে তোলে: হারুন

স্টাফ রিপোর্টার: খুলনার প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকদের অংশগ্রহণে বাংলাদেশ প্রেস কাউন্সিল আয়োজিত প্রশিক্ষণ কর্মশালা শনিবার (২৭এপ্রিল) খুলনা সার্কিট হাউস সম্মেলকক্ষে অনুষ্ঠিত হয়।
সাংবাদিকতার নীতিমালা, বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ পরিবেশন ও তথ্য অধিকার আইন অবহিতকরণ বিষয়ক এই কর্মশালায় পঞ্চান্নজন সাংবাদিক অংশগ্রহণ করেন। কর্মশালার উদ্বোধন করেন বাংলাদেশ প্রেস কাউন্সিলের চেয়ারম্যান বিচারপতি মোহাম্মদ মমতাজ উদ্দিন আহমেদ। প্রধান অতিথি ছিলেন খুলনা জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শেখ হারুনুর রশীদ।
প্রধান অতিথি শেখ হারুনুর রশীদ বলেন, সাংবাদিকরা জাতির বিবেক। গণমাধ্যম ঘুমন্ত জাতিকে জাগিয়ে তোলে। গণমাধ্যম ও সংবাদকর্মীদের ওপর মানুষের অবিচল আস্থা। এজন্য গণমাধ্যমকার্মীদেরকে বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ পরিবেশন করতে হবে। রাষ্ট্রের নিরাপত্তা ও ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন হতে পারে এমন সংবাদ প্রচার থেকে বিরত থাকতে হবে।
উদ্বোধনী বক্তৃতায় বিচারপতি মোহাম্মদ মমতাজ উদ্দিন আহমেদ বলেন, আমাদের সংবিধান সংবাদমাধ্যমের স্বাধীনতা নিশ্চিত করেছে। গণমাধ্যম ওয়াচডগ হিসেবে কাজ করে সরকারকে সঠিকপথে পরিচালিত করে। বর্তমান সরকারও সংবাদ মাধ্যমের স্বাধীনতা ও অধিকারের ব্যাপারে অত্যন্ত আন্তরিক। তবে সংবিধান ও সরকার প্রদত্ত স্বাধীনতা ভোগ করতে গিয়ে সাংবাদিকদের দায়িত্বশীলতার জায়গাটা ভুলে গেলে চলবে না। তিনি তথ্যকে হত্যা না করার জন্য সকল সাংবাদিকদের প্রতি আহবান জানান।
কর্মশালায় ‘বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ পরিবেশন-সাংবাদিকদের দায়িত্ব ও কর্তব্য’ বিষয়ে সেশন পরিচালনা করেন জাতীয় প্রেসক্লাবের সিনিয়র সহসভাপতি মোঃ ওমর ফারুক, সাংবাদিকতার নীতিমালা ও নৈতিকতার বিষয়ে বক্তব্য দেন বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের নির্বাহী পরিষদের সদস্য খায়রুজ্জামাল কামাল এবং তথ্য অধিকার আইন-২০১৯ এর ওপর বক্তৃতা করেন বাংলাদেশ প্রেস কাউন্সিলের সচিব মোঃ শাহ আলম।
কর্মশালায় সভাপতিত্ব করেন অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ ইউসুপ আলী।
পরে জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এবং বাংলাদেশ প্রেস কাউন্সিলের চেয়ারম্যান প্রশিক্ষণার্থীদের মাঝে সনদপত্র প্রদান করেন।

Related posts