মঙ্গলবার, ৩ আগস্ট ২০২১ | ১৮ শ্রাবণ ১৪২৮

Select your Top Menu from wp menus

খুলনা মহানগরীর মসজিদে মসজিদে ঈদের জামাত

স্টাফ রিপোর্টার: খুলনা মহানগরীর প্রতিটি মসজিদে ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হয়। করোনা ভাইরাস সংক্রমণরোধে অনেকটা স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করে ঈদুল আজহার জামাত অনুষ্ঠিত হয়।
বুধবার (২১ জুলাই) প্রধান ও প্রথম জামাত অনুষ্ঠিত হয় সকাল ৮টায় টাউন জামে মসজিদে। টাউন জামে মসজিদে ঈদের প্রধান জামাতে ইমামতি করেন মাওলানা মোহাম্মদ সালেহ। একই স্থানে দ্বিতীয় জামাত এবং তৃতীয় ও শেষ জামাত অনুষ্ঠিত হয়। এছাড়া কোর্ট জামে মসজিদে সকাল সাড়ে আটটায় একটি ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হয়।
খুলনা সিটি করপোরেশন পরিচালিত বায়তুন নূর জামে মসজিদ কমপ্লেক্স-এ পবিত্র ঈদুল আজহার দু’টি জামাত অনুষ্ঠিত হয়।
খুলনা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (কুয়েট) জামাত সকাল সাড়ে ৭টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে ও সরকারি বিএল কলেজ কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে সকাল সাড়ে ৭টায় একটি জামাত অনুষ্ঠিত হয়। পূর্ববানিয়া খামার কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে সকাল সাড়ে ৭টায় ঈদের একটি জামাত, তারের পুকুর আল-হেরা জামে মসজিদে প্রথম জামাত ৭টায়, ২য় জামাত সাড়ে ৭টায় ও মুজগুন্নি বায়তুন নাজাত জামে মসজিদে সকাল ৭টা ও ৮টায় দুটি জামাত অনুষ্ঠিত হয়।
এছাড়া রায়পাড়া মসজিদে মিনায় সকাল ৮টায়, আমতলা মসজিদে দুটি জামাত অনুষ্ঠিত হবে। প্রথমটা সকাল ৭টায় ও দ্বিতীয়টা ৮টা ১৫ মিনিটে। বাংলাদেশ ব্যাংক কোয়ার্টার জামে মসজিদে সকাল ৭টায়, মতি মসজিদে প্রথম জামাত সকাল ৭টায় ও দ্বিতীয় জামাত সকাল ৮টায় অনুষ্ঠিত হয়।
মজিদিয়া খানজাহান নগর জামে মসজিদে সকাল সাড়ে ৭টায়, মোল্লাপাড়া কেন্দ্রীয় জামে মসজিদ সকাল ৭টা ১৫ মিনিটে, হাজী মালেক কবরখানা জামে মসজিদে সকাল সাড়ে ৭টায়, লবনচরা হাজী আব্দুল মালেক জামে মসজিদে সকাল ৮টায় ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হয়।
এছাড়া খুলনা সিটি করপোরেশনের ৩১টি ওয়ার্ডের বিভিন্ন মসজিদে সিটি করপোরেশনের সহায়তায় ও ওয়ার্ড কাউন্সিলরদের তত্ত্বাবধানে পৃথকভাবে নিজেদের সময় অনুযায়ী মসজিদে ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হয়। অনুরূপভাবে জেলার সব উপজেলার মসজিদে ঈদুল আজহার জামাত অনুষ্ঠিত হয়।
ঈদের নামাজ আদায়ের সময়ে ধর্ম মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনা মেনে শারীরিক দূরত্ব বজায় রেখে এবং স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করে কাতারে দাঁড়ান মুসল্লিরা। করোনা ভাইরাস মহামারি থেকে রক্ষা পেতে নামাজ শেষে মহান আল্লাহর দরবারে দোয়া করা হয়।
মোনাজাতে দেশ ও জাতির মঙ্গলও কামনা করা হয়। এ সময় বৈশ্বিক করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত ও মৃতদের জন্য দোয়া করা হয়।

Related posts