রবিবার, ৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ ❙ ২২ মাঘ ১৪২৯

কয়রায় স্ত্রীকে গলা টিপে হত্যা, স্বামী গ্রেফতার

কয়রা (খুলনা) প্রতিনিধি: কয়রায় গলা টিপে স্ত্রী রহিমা পারভীন খুশি (২০) কে হত্যা করেছে তার স্বামী শরিফুল ইসলাম (২৫)।

সাতক্ষীরার আশাশুনি থানা থেকে আটক শরিফুল কয়রা থানায় স্বীকারোক্তি জবানবন্দিতে স্ত্রী হত্যার কথা স্বীকার করেছেন এবং এ জন্য অন্য কেউ দায়ী নয় বলে পুলিশকে জানিয়েছেন। ঘটনাটি রোববার রাত ১২ টার দিকে উপজেলার দেয়াড়া গ্রামে সাত্তার সানার বাড়ীতে।

এ ঘটনায় নিহত রহিমার পিতা বাদী হয়ে কয়রা থানায় শরিফুল ও তার পিতা সাত্তার সানাকে আসামী করে হত্যা মামলা দায়ের করেছে। সূত্র জানায়, স্বামী স্ত্রীর মধ্যে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে শরিফুল ঘরে শোয়া অবস্থায় স্ত্রীকে গলা টিপে হত্যা করে। পরে অচেতন অবস্থায় শরিফুল ও তার পিতা এবং অন্যান্য আত্মীয় স্বজন রাত ৩ টায় জায়গীর মহল হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত ডাক্তার মৃত্যু ঘোষণা করে। পুলিশ জানায়, হাসপাতাল থেকে শরিফুল পালিয়ে আশাসুনি থানার বড়ডাল গ্রামে পৌছালে সকালে স্থানীয়রা তাকে আটক করেন। পরে পুলিশ তাকে উদ্ধার করে থানায় আনলে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে সে একাই হত্যার দায় স্বীকার করে। জানা গেছে, রহিমার দুই বছরের একটি পুত্র সন্তান আছে। ঘটনার পর থেকে তার সন্তানের কান্না থামছে না বলে আত্মীয়রা জানায়।

Related posts