মঙ্গলবার, ৩ আগস্ট ২০২১ | ১৮ শ্রাবণ ১৪২৮

Select your Top Menu from wp menus

কিংবদন্তিতুল্য অভিনেতা দিলীপ কুমার মারা গেছেন

কালচারাল ডেস্ক: বলিউডের কিংবদন্তিতুল্য অভিনেতা দিলীপ কুমার আর নেই। আজ (বুধবার) সকাল সাড়ে ৭টার দিকে ভারতের মুম্বাইয়েরে পিডি হিন্দুজা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি। তার বয়স হয়েছিল ৯৮ বছর।
দীর্ঘদিন ধরেই বার্ধক্যজনিত নানা রোগে ভুগছিলেন দিলীপ। গত ৩০ জুন তাকে মুম্বাইয়ের হিন্দুজা হাসপাতালে তাকে ভর্তি করা হয়। অবস্থা খারাপ হলে তাকে হাসপাতালটির নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) নেওয়া হয়। তার শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল বলে কয়েকদিন আগে টুইটারে জানিয়েছিলেন তার স্ত্রী সায়রা বানু। শেষ পর্যন্ত সবাইকে কাঁদিয়ে চলে গেলেন কিংবদন্তি এই অভিনেতা। এর আগে প্রায়ই অসুস্থতার কারণে হাসপাতালে ভর্তি হতে হয় বলিউডের বর্ষীয়ান অভিনেতাকে। কিন্তু সম্প্রতি আবারও অসুস্থ হয়ে পড়লে মুম্বাইয়ের পিডি হিন্দুজা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল এই তারকাকে। দিলীপ কুমারের স্ত্রী ও অভিনেত্রী সায়রা বানু জানিয়েছিলেন। অভিনেতা বেশ কিছুদিন ধরে শ্বাসকষ্টে ভুগছেন।
দিলীপ কুমারের আসল নাম ইউসুফ খান। ১৯২২ সালের ১১ ডিসেম্বর বর্তমান পাকিস্তানের পেশোয়ারে তার জন্ম। ‘জোয়ার-ভাটা’, ‘আন’, ‘আজাদ’, ‘দেবদাস’, ‘আন্দাজ’, ‘মুঘল-ই-আজম’, ‘গঙ্গা-যমুনা’, ‘ক্রান্তি’, ‘কর্মা’, ‘শক্তি’, ‘সওদাগর’, ‘মশাল’সহ ৫০-এর বেশি বলিউডের ছবিতে তিনি কাজ করেছেন। তপন সিনহা পরিচালিত বাংলা ছবি ‘সাগিনা মাহাতো’তে দিলীপ কুমার অভিনয় করেছিলেন। দিলীপ কুমারকে বলা হয় বড়পর্দার ‘ট্র্যাজেডি কিং’। তাকে এই তকমা এনে দিয়েছে ‘আন্দাজ’, ‘বাবুল’, ‘মেলা’, ‘দিদার’, ‘যোগান’সহ বেশকিছু সিনেমা। সর্বশেষ ১৯৯৮ সালে ‘কিলা’ সিনেমাতে অভিনয় করেন তিনি।
২০১৫ সালে ভারতের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ বেসামরিক সম্মাননা ‘পদ্মবিভূষণ’পান দিলীপ কুমার। ১৯৯১ সালে দেশের তৃতীয় সর্বোচ্চ বেসামরিক সম্মাননা ‘পদ্মভূষণ’ও ১৯৯৪ সালে ‘দাদাসাহেব ফালকে’ পুরস্কারে ভূষিত হন এ অভিনেতা।

Related posts