বৃহস্পতিবার, ১৮ আগস্ট ২০২২ ❙ ৩ ভাদ্র ১৪২৯

কারিতাসের সেবামূলক কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে,আশাবাদ মেয়রের

স্টাফ রিপোর্টার: খুলনা সিটি কর্পোরেশনের মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক বলেছেন, স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা কারিতাস পঞ্চাশ বছর যাবত আর্ত-মানবতার সেবায় কাজ করছে। এই দীর্ঘ সময়ে সংস্থাটি খুলনাসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে দুঃস্থ, অসহায় ও ছিন্নমূল মানুষকে সহায়তা করে আসছে। দক্ষিণ বাংলার মানুষের জন্য সংস্থাটির কার্যক্রম আমাদেরকে মুগ্ধ করেছে। গণমানুষের কল্যাণে তাদের এ সেবামূলক কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে এবং ভবিষ্যতে তাদের কার্যক্রম আরো গতিশীল হবে বলে আমার প্রত্যাশা।
সিটি মেয়র সোমবার (২০ ডিসেম্বর) রূপসা স্ট্র্যান্ড রোডস্থ নিজস্ব কার্যালয়ে বেসরকারি সংস্থা কারিতাস-বাংলাদেশ এর সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপনের দ্বিতীয় পর্যায়ের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এ কথা বলেন। ‘ভালবাসা ও সেবায় ৫০ বছরের পথ চলা’ প্রতিপাদ্য নিয়ে কারিতাস-বাংলাদেশ, খুলনা অঞ্চল এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। অনুষ্ঠানে সিটি মেয়র শীতার্ত মানুষের মাঝে শীতবস্ত্র, ৫০টি দু:স্থ পরিবারের মাঝে গৃহ মেরামতের জন্য নগদ অর্থ প্রদান করেন এবং সুবর্ণজয়ন্তীর স্মরণিকার মোড়ক উন্মোচন করেন। পরে সিটি মেয়র অফিস চত্বরে বৃক্ষরোপণ করেন।
খুলনা ধর্ম প্রদেশের ধর্মপাল ও সংস্থার প্রেসিডেন্ট বিশপ জেমস রমেন বৈরাগী’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে সংস্থার কার্যক্রমের ওপর ডকুমেন্টারী উপস্থাপন করেন কারিতাস-খুলনার আঞ্চলিক পরিচালক দাউদ জীবন দাস। অন্যান্যের মধ্যে সংস্থার পরিচালক (অর্থ ও প্রশাসন) জেমস গমেজ, সাবেক কর্মকর্তা মজিদ মোড়ল প্রমুখ অনুষ্ঠানে বক্তৃতা করেন। স্বাগত বক্তৃতা করেন সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপন কমিটির আহবায়ক তাপস সরকার।
সকাল ১০টায় জেলা প্রশাসক মোঃ মনিরুজ্জামান তালুকদার প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে অনুষ্ঠানের প্রথম পর্বের উদ্বোধন করেন। সংস্থার প্রেসিডেন্ট বিশপ জেমস রমেন বৈরাগী’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেস অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সমাজসেবা অধিদপ্তর-খুলনার উপপরিচালক খান মোতাহার হোসেন। পরে তিনি প্রতিবন্ধীদের মাঝে হুইল চেয়ার বিতরণ করেন।

Related posts