সোমবার, ৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ ❙ ২৩ মাঘ ১৪২৯

করোনার চিকিৎসায় ক্লোরোকুইনের ব্যবহার নিয়ে কী বলছে গবেষণা

এসবিনিউজ ডেস্ক: করোনাভাইরাসে আক্রান্তদের জন্য ক্লোরোকুইন বা হাইড্রোক্সিক্লোরোকুইন কতটুকু কার্যকরী তা নিয়ে গবেষণা করছেন বিজ্ঞানীরা। ওষুধ দু’টি শত বছর ধরে ম্যালেরিয়ার চিকিসায় ব্যবহৃত হয়ে আসছে। তবে করোনা আক্রান্তদের চিকিসায় ওষুধটি ব্যবহারে কতটুকু ফল পাওয়া গেছে তা নিয়ে নতুন কিছু তথ্য পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে উদ্বেগও তৈরি হয়েছে।

কিছু গবেষণায় দেখানো হয়েছে, ক্লোরোকুইন করোনাভাইরাসে আক্রান্তদের চিকিসায় কার্যকরী হতে পারে। তবে বেশিরভাগ চিকিসক পুরোপুরি নিশ্চিত না হয়ে ওষুধটি ব্যবহার করতে রাজি নন। কয়েকটি দেশের গবেষণায় একটি ভয়ঙ্কর তথ্যও উঠে এসেছে। তা হলো- ক্লোরোকুইন ব্যবহারের ফলে অনেক করোনা আক্রান্তের হৃদযন্ত্র (হার্ট) ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। অনেকের মৃত্যুও হয়েছে।

সিএনএন অনলাইনের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, এমন পরিস্থিতিতে ব্রাজিলে করোনা চিকিসায় ক্লোরোকুইনের ব্যবহার একেবারেই সীমিত করা হয়েছে। সুইডেনে ভাইরাস আক্রান্তদের ক্ষেত্রে এ ওষুধ ব্যবহারে সতর্কতা জারি করা হয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রের হৃদরোগ বিশেষজ্ঞরাও (কার্ডিওলজিস্ট) ক্লোরোকুইন ব্যবহারের বিষয়ে সতর্কবার্তা দিয়েছেন। বিশেষ করে যারা হৃদরোগে (হার্টের অসুখে) ভুগছেন তাদের জন্য এ ওষুধ ব্যবহার হিতে বিপরীত হতে পারে।

করোনাভাইরাসের আক্রান্তদের জন্য এখন পর্যন্ত কোনো ওষুধ বা টিকা আবিষ্কার হয়নি। এ নিয়ে বিশ্বব্যাপী কাজ চলছে। অনেকগুলোর পরীক্ষামূলক প্রয়োগ চলছে। তবে কোনোটাই স্বীকৃত নয়। এরই মাঝে ক্লোরোকুইন নিয়ে আশাবাদী হয়ে ওঠেন অনেকে। মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পও আছেন এই আশাবাদীদের দলে। তিনি ক্লোরোকুইনকে ‘ঈশ্বরের দেওয়া উপহার’ এবং ‘গেম চেঞ্জার’ হিসেবেও উল্লেখ করেছেন। অভিযোগ আছে, তার চাপেই যুক্তরাষ্ট্রের খাদ্য ও ওষুধ প্রশাসন করোনাভাইরাসে আক্রান্তদের চিকিসায় ক্লোরোকুইন বা হাইড্রোক্সিক্লোরোকুইন ব্যবহারের অনুমতি দিয়েছে।

সম্প্রতি নিউইয়র্ক টাইমসের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, ফ্রান্সের ওষুধ কোম্পানি সানোফি ক্লোরোকুইন তৈরি করে। এ কোম্পানিটিতে ট্রাম্পের শেয়ার রয়েছে। ট্রাম্পের ঘনিষ্ঠ অনেকেরও শেয়ার রয়েছে এমন কিছু ওষুধ কোম্পানিও ক্লোরোকুইন বা হাইড্রোক্সিক্লোরোকুইন তৈরি করে।

হাভার্ড মেডিকেল স্কুলে ওষুধের ইতিহাস নিয়ে গবেষণা করেন অ্যারন শাকো। সম্প্রতি তিনি ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম দ্য গার্ডিয়ানকে বলেন, নিরো যখন প্রাচীন রোমের সম্রাট ছিলেন তখন সেখানে একবার মহামারি দেখা দিয়েছিল। রাজ্যের প্রধান বৈদ্য তখন সম্রাটের পক্ষে ‘জাদুকরি ওষুধের’ প্রণালি প্রচার করেছিলেন। যাতে নিরোর ক্ষমতার খুঁটি নড়ে না যায়। কারণ মহামারি সবসময় শাসকদের টিকে থাকার জন্য ঝুঁকিপূর্ণ।

তবে ট্রাম্পের ‘প্রধান বৈদ্য’ যুক্তরাষ্ট্রের করোনা টাস্কফোর্সের অন্যতম সদস্য ও সংক্রামক রোগ বিশেষজ্ঞ ডা. অ্যান্থনি ফুচি পর্যাপ্ত পরীক্ষার আগে ক্লোরোকুইন ব্যবহারে পক্ষপাতী নন। এ নিয়ে ট্রাম্পের সঙ্গে তার মতবিরোধ প্রকাশ্য। সম্প্রতি ট্রাম্প এক টুইটে ডা. ফুচিকে বরখাস্তের হুমকি পর্যন্ত দিয়েছেন।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা সোমবার জানিয়েছে, ক্লোরোকুইন বা হাইড্রোক্সিক্লোরোকুইন করোনার চিকিসায় কার্যকরী কিনা তা জানতে ‘অধীর আগ্রহে অপেক্ষা’ করছে সংস্থাটি। যদিও বেশ কয়েকটি দেশে অনানুষ্ঠানিকভাবে করোনা আক্রান্তদের চিকিসায় ওষুধটির ব্যবহার শুরু হয়েছে আরও আগেই।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার জরুরি স্বাস্থ্য কার্যক্রমের প্রধান নির্বাহী ডা. মাইক রায়ান বলেন, করোনাভাইরাসের চিকিসায় ক্লোরোকুইন বা হাইড্রক্সিক্লোরোকুইন ব্যবহারে সফলতার এখনও কোনো প্রমাণ নেই। চিকিসকরাও এ ওষুধ ব্যবহারের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ার ব্যাপারে সতর্ক করে দিচ্ছেন বার বার।

সম্প্রতি ব্রাজিলে করোনা আক্রান্ত কয়েকজন রোগীর ওপর ক্লোরোকুইন প্রয়োগের বিষয়ে গবেষণা হয়। এতে দেখা গেছে, ক্লোরোকুইন খাওয়ানো হয়েছে এমন বেশ কয়েকজন করোনা আক্রান্ত রোগীর মৃত্যু হয়েছে। পরে দেখা গেছে, ক্লোরোকুইনের উচ্চ মাত্রার প্রয়োগে তাদের হৃদযন্ত্র অনিয়মিতভাবে কাজ করতে শুরু করে এবং এক পর্যায়ে তারা মারা যান। ব্রাজিলের গবেষকদের গবেষণাটি একটি আন্তর্জাতিক মেডিকেল জার্নালে প্রকাশের জন্য পাঠানো হয়েছে।

Related posts