বৃহস্পতিবার, ১৬ জুলাই ২০২০ | ১ শ্রাবণ ১৪২৭

Select your Top Menu from wp menus

এভারটনের বিপক্ষে সিটি ডার্বি দিয়ে আজ মাঠে ফিরছে লিভারপুল

স্পোর্টস ডেস্ক: করোনার কারণে দীর্ঘ প্রায় তিনমাস নির্বাসিত থাকার পর প্রিমিয়ার লীগের ম্যাচে মাঠে নামছে টেবিল টপার লিভারপুল। স্থানীয় প্রতিপক্ষ এভারটনের বিপক্ষে ডার্বি ম্যাচ দিয়ে প্রত্যাবর্তন ঘটতে যাচ্ছে তাদের। আজ সোমবারের ম্যাচে যদি জয়লাভ করতে পারে তাহলে ৩০ বছর পর প্রথম লীগ শিরোপা জয়ের একম্যাচ দূরত্বে পৌঁছে যাবে জার্গেন ক্লপের শিষ্যরা।
মাঠের খেলা স্থগিত হবার আগে পর্যন্ত মৌসুমের প্রথম ৮ মাসে রেকর্ড ব্রেকিং সফলতা অর্জন করেছে লিভারপুল। এ সময় ২২টি ম্যাচে অংশ নিয়ে ক্লাবটি হাতছাড়া করেছে মাত্র ৫টি পয়েন্ট। এরই ধারাবাহিকতায় প্রতিদ্বন্দ্বি ক্লাবগুলোর সাথে ২২ পয়েন্টের ব্যবধান রচনা করে পয়েন্ট তালিকার শীর্ষস্থান দখল করে লিভারপুল।
ফলে ফের শুরু হওয়া লীগের বাকী ৯ ম্যাচ থেকে মাত্র দুটি জয় পেলেই শিরোপা নিশ্চিত হয়ে যাবে লিভারপুলের। তবে সোমবারই লিভারপুলের শিরাপা নিশ্চিত হবার সুযোগ রয়েছে। সেক্ষেত্রে আজ যদি তারা এভারটনকে হারিয়ে পুর্ন তিন পয়েন্ট লাভ করতে পারে এবং এর ২৪ ঘণ্টা পর লীগের আরেক ম্যাচে তাদের শিরোপা প্রতিদ্বন্দ্বি ম্যানচেস্টার সিটির যদি বার্নলির কাছে হেরে যায়, তাহলে পরের ম্যাচ খেলতে নাঠে যাবার আগেই দীর্ঘ প্রতিক্ষিত শিরোপা উৎসবে নেমে যেতে পারবে ক্লপ বাহিনী।
নিজেদের মাঠে না হলেও আনফিল্ড থেকে মাত্র এক মাইলেরও কম দূরত্বের মধ্যে এভারটনের গুডিসন পার্কে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে রবিবারের ম্যাচটি। যেখানে কোন রকমের ঘাটতিই থাকবেনা লিভারপুল সমর্থকদের। যদিও করোনা মহামারীর কারণে দর্শকশূন্য মাঠেই অনুষ্ঠিত হবে এই ম্যাচ। মহামারীর কারণে খেলা বন্ধের আশংকায় ক্লপের লক্ষ্য যত দ্রুত সম্ভব শিরোপা নিশ্চিত করা। তাই মার্সিসাইড ডার্বিতে কোন সুযোগই হাতছাড়া করতে চাননা তিনি।
এক ভিডিও কনফারেন্সে ক্লপ বলেন, সবাই যখন মৌসুম বাতিল করার কথা বলাবলি করছিল, তখন আমি খুবই শংকিত হয়ে পড়েছিলাম। কারণ আমি চাই লড়াই করেই শিরোপা জয় করতে। যেটি ছিল খুবই কঠিন।
জার্মানির ওই কোচ তার শিষ্যদের বলেন, আমরা সবাই যখন ফুটবল খেলা শুরু করেছিলাম, তখন খুব একটা জনসমাগম ছিল না। সময়ের বিবর্তনে রবিবার যখন খেলা শুরু করব তখনো মাঠে কোন ভীড় থাকবে না। তারপরও আমি জয়লাভ করতে চাই। এখন সবকিছুই অন্যরকম, কিন্তু আমরা এর পরিবর্তন করতে পারব না। আমাদেরকে এই পরিবেশের সাথেই মানিয়ে নিতে হবে। এভারটন ও লিভারপুলের মধ্যকার এই ম্যাচটি এখনো ডার্বি। ভিন্ন প্রয়োজনে দুই দলের কাছেই ম্যাচটি গুরুত্বপুর্ন। তাই আমরা ম্যাচটির জন্য অপেক্ষা করছি।

Related posts