তালার খলিলনগর ইউনিয়ন ভূমি অফিসের নবনির্মিত ভবনে ফাঁটল


ফেব্রুয়ারি ১০ ২০১৮

সেলিম হায়দার : উদ্বোধনের আগেই ফাঁটল দেখা দিয়েছিল সাতক্ষীরার তালার খলিলনগর ইউনিয়ন ভূমি অফিসের সদ্য নির্মিত ভবনে। এজন্য ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানকেই দায়ী করছেন এলাকাবাসীর পাশাপাশি খোদ সেখানকার তহশীলদার থেকে শুরু করে সংশ্লিষ্টরা। মূল ভবনের গ্রেট ভিমে ফাঁটল থেকে শুরু করে দেওয়ালের প্লাষ্টার খসে পড়ার পাশাপাশি বিভিন্ন কাজ অসম্পূর্ণ রেখে ভবনের উদ্বোধন ও নানা অনিয়মের ফিরিস্তি দিয়ে ভূমি অফিসের তহশীলদার সহকারী কমিশনার (ভূমি) বরাবর একটি লিখিত অভিযোগ করেছেন।

তহশীলদার গত ১ ফেব্রুয়ারী ঐ অভিযোগ করলেও ৭ ফেব্রুয়ারী ভবনটির শুভ উদ্বোধন করেছেন সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক আবুল কাশেম মোঃ মহিউদ্দিন। এতে কর্তৃপক্ষের ভূমিকা নিয়ে এলাকায় ব্যাপক সমালোচনার জন্ম দিয়েছে। এর আগে খলিলনগর ভুমি অফিসের তহশীলদার তালুকদার মোঃ হাসানাত তার অভিযোগে বলেন,ভবনটি নির্মাণের পূর্বে ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের নিকট ভবন নির্মানের এষ্টিমেট বা সিডিউল সরবরাহ করেননি। এজন্য তিনি কাজ শুরুর আগেই পরিকল্পিতভাবে বিভিন্ন অনিয়ম-দূর্নীতির আশ্রয় নিয়েছেন বলে মনে করেন ঐ তহশীলদার।

সূত্র জানায়,উপজেলা ও ইউনিয়ন ভূমি অফিস নির্মাণ (৬ষ্ঠ পর্ব) প্রকল্পের আওতায় গণপূর্ত বিভাগের সাতক্ষীরা নির্বাহী প্রকৌশলী গত ২০১৬ সালের ১৯ জুলাই ৩১/৩(৬) নং স্মারকে খলিলনগর ইউনিয়ন ভূমি অফিসের ভবন নির্মাণের জন্য কার্যাদেশ দেন। ঝিনাইদহের আদর্শপাড়া শহরতলীর ঠিকাদার মেসার্স মোঃ আসাদুজ্জামান ভবন নির্মাণের কাজ করেন। খলিলনগর মৌজার জেএল ১৪৮,১নং খাস খতিয়ানের ০.১৪ এশর জমির উপর ১০৫০.০০ বর্গফুটের দ্বিতল ভবনটির জন্য সরকার প্রায় ৯৭ লক্ষ টাকার ব্যয় বরাদ্দ করে। তবে সেখানকার তহশীলদার তালুকদার মোঃ হাসানাতের স্থানীয় উপজেলা সহকারী কমিশনার(ভূমি) বরাবর অভিযোগ সম্বলিত অবহিতকরণ পত্রে উল্লেখ করেন যে, নব নির্মিত ভবনটির রেকর্ড রুমের ফ্লোর থেকে দেড় ফুট উপরে প্লাষ্টার নষ্ট হয়ে গেছে। নীচ তলার ফ্লোর ও গ্রেট ভিমের নীচে ফাঁটল দেখা দিয়েছে। এখনো প্রায় ৬ ইঞ্চি মাটি ভরাট বাকী রয়েছে। এছাড়া ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানটি ভবনটিতে নি¤œমাণের বিভিন্ন উপকরণ সামগ্রী ব্যবহার করেছেন। যার স্মারক নং-১৪। তাং ১/২/১৮। ঐ অভিযোগে তিনি আরো উল্লেখ করেন ভবনটি নির্মাণের পূর্বে তাকে ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের কোন এষ্টিমেট বা সিডিউল সরবরাহ করেনি।

এদিকে ঐ তহশীলদার গত ১ ফেব্রুয়ারী অভিযোগটি দায়ের করলেও এর ৬ দিন পর সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক আবুল কাশেম মোঃ মহিউদ্দিন প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে ৭ ফেব্রুয়ারী ভবনটি আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন করেন। এতে সভাপতিত্ব করেন তালা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ ফরিদ হোসেন।

উদ্বোধনের আগেই ভবনটিতে ফাঁটলসহ নানা অনিয়মের খবরে এলাকাবাসীর মধ্যে তীব্র বিরূপ প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়েছে। তারা বিষয়টি তদন্তপূর্বক সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য জরুরী হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

 

 


এক্সক্লুসিভ


সাক্ষাৎকার

Ad Space

আইন-আদালত


শিল্প-সাহিত্য

Ad Space

ভ্রমণ

ফিচার

Ad Space

পরিবেশ

Ad Space

আবহাওয়া

Ad Space

রাশিফল


Ad Space