সুন্দরবনে র্যা ব-সন্ত্রাসী বন্দুকযুদ্ধ, সুমন বাহিনীর ৩ সদস্য নিহত


জানুয়ারি ১১ ২০১৮

স্টাফ রিপোর্টার: সুন্দরবনে র‌্যাবের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে সুমন বাহিনীর তিন সক্রিয় সদস্য নিহত হয়েছেন। এসময় বেশ কিছু আগ্নেয়াস্ত্র ও গুলি উদ্ধার করা হয়। বৃহস্পতিবার (১১জানুয়ারি) সকালে সুন্দরবন পূর্ব বিভাগের শরণখোলা রেঞ্জের সুখপাড়ারচর এলাকায় এই বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে। উদ্ধার হওয়া অস্ত্রের মধ্যে রয়েছে একনলা বন্দুক দুটি, কাটা রাইফেল একটি, পাইপগান একটি ও বিভিন্ন ধরনের বন্দুকের ৩৯ রাউন্ড গুলি।

র‌্যাব-৮ এর উপঅধিনায়ক মেজর সোহেল রানা প্রিন্স বলেন, জলদস্যু বাহিনী প্রধান সুমন বাহিনীর সদস্যরা সুন্দরবন পূর্ব বিভাগের শরণখোলা রেঞ্জের সুখপাড়ারচর এলাকায় অবস্থান করছে এমন সংবাদের ভিত্তিতে র‌্যাবের একটি দল ওই এলাকায় অভিযানে যায়। এসময় সুমন বাহিনীর সদস্যরা র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে গুলি ছুড়তে শুরু করে। এসময়  র‌্যাব ও পাল্টা গুলি চালায়।

র‌্যাব জানায়, প্রায় ৪০ মিনিট বন্দুকযুদ্ধের একপর্যায়ে জলদস্যুরা পিছু হটে বনের গহীনে চলে যায়। পরে  র‌্যাব সদস্যরা সেখানে তল্লাশি চালিয়ে তিনজনের গুলিবিদ্ধ মরদেহ উদ্ধার ও বেশকিছু অস্ত্র গুলি উদ্ধার করে। সকাল ৮টা ৪০ মিনিট থেকে ৯টা ২০ মিনিট পর্যন্ত উভয়পক্ষের মধ্যে গোলাগুলি চলে। গোলাগুলি থেমে গেলে নদীখালে মাছ ধরা জেলেরা সেখানে এসে তিনজনকে সুমন বাহিনীর সদস্য বলে শনাক্ত করেন।

সুমন নামে এক যুবক নিজ নামে বাহিনী গড়ে তুলে সুন্দরবন ও বঙ্গোপসাগরের ওপর নির্ভরশীল জেলে, বাওয়ালি ও মৌয়ালদের অপহরণ করে মুক্তিপণ আদায় করে আসছিলো বলে র‌্যাব জানায়।

উদ্ধার করা অস্ত্রের মধ্যে রয়েছে ২টি সিঙ্গেল ব্যারেল ও ১টি কাটা রাইফেল, ১টি পাইপগান, ৪টি দেশি অস্ত্র ও ৩৯ রাউন্ড তাজা গুলি।

 

 


এক্সক্লুসিভ


সাক্ষাৎকার

Ad Space

আইন-আদালত


শিল্প-সাহিত্য

Ad Space

ভ্রমণ

ফিচার

Ad Space

পরিবেশ

Ad Space

আবহাওয়া

Ad Space

রাশিফল


Ad Space