খুলনায় মহান বিজয় দিবসের অনুষ্ঠানসূচি


ডিসেম্বর ১১ ২০১৭

স্টাফ রিপোর্টার: মহান বিজয় দিবস-২০১৭ যথাযোগ্য মর্যাদায় উদযাপনের ল্েয জাতীয় কর্মসূচির আলোকে খুলনা জেলা প্রশাসন বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ করেছে।

১৬ ডিসেম্বর সূর্যোদয়ের সাথে সাথে গলামারী শহীদ স্মৃতিসৌধে পুষ্পমাল্য অর্পণ করা হবে। প্রত্যুষে খুলনা মেট্রোপলিটন পুলিশ লাইনে একত্রিশবার তোপধ্বনির মাধ্যমে দিবসের শুভ সূচনা করা হবে। ওইদিন সূর্যোদয়ের সাথে সাথে সকল সরকারি, আধাসরকারি, স্বায়ত্বশাসিত, বেসরকারি ভবন ও প্রতিষ্ঠানে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করা হবে। এছাড়া নগরীর সকল সুউচ্চ ভবনে নির্ধারিত বড় মাপের (১০ ঃ ৬) জাতীয় পতাকা উত্তোলন করা হবে।

সকাল সাড়ে আটটায় খুলনা জিলা স্কুল মাঠে বিভাগীয় কমিশনার আনুষ্ঠানিকভাবে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করবেন।  একই স্থানে সকাল ৮-৪০টায় বীর মুক্তিযোদ্ধা, পুলিশ, আনসার-ভিডিপি, বিএনসিসি, ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স, স্কুল,কলেজ, মাদ্রাসাসহ বিভিন্ন শিা ও সামাজিক প্রতিষ্ঠান, শিশু-কিশোর সংগঠন, কারারী, বাংলাদেশ স্কাউট, রোভার স্কাউট, গার্লসগাইড কর্তৃক কুচকাওয়াজ অনুষ্ঠান এবং শরীরচর্চা প্রদর্শনী অনুষ্ঠিত হবে।

ওইদিন সকল শিা প্রতিষ্ঠানে মুক্তিযুদ্ধ ভিত্তিক বিভিন্ন অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হবে।  সকাল ১১টা থেকে ১২টা পর্যšত নগরীর সিনেমা হলসমূহে শিার্থীদের বিনা টিকিটে মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক চলচ্চিত্র প্রদর্শন করা হবে। ১৬ ডিসেম্বর বেলা ১২টা থেকে সন্ধ্যা পর্যšত খুলনা পিআইডি’র আয়োজনে শহীদ হাদিস পার্কে মুক্তিযুদ্ধের ওপর স্থিরচিত্র প্রদর্শন করা হবে। বেলা ১২টা হতে বিকেল চারটা পর্যšত বিভাগীয় জাদুঘর বিনা টিকেটে  সর্বসাধারণের জন্য উম্মুক্ত রাখা হবে।  বীর মুক্তিযোদ্ধা ও শহীদ পরিবারের সšতানদের সংবর্ধনা প্রদান করা হবে বেলা  সাড়ে ১১টায় জেলা প্রশাসকের সম্মেলন ক।ে  দুপুর দুইটা বা সুবিধাজনক সময়ে হাসপাতাল,  জেলখানা, বৃদ্ধাশ্রম, এতিমখানা, শিশুসদন ও ভবঘুরে প্রতিষ্ঠানসমূহে বিশেষ খাবার পরিবেশন করা হবে।  স্থানীয় নৌ-বাহিনীর জাহাজ জনসাধারণের দর্শনের জন্য বিআইডবিউটিএ রকেট ঘাটে বেলা দুইটা  হত সূর্যা¯ত পর্যšত  উম্মুক্ত রাখা হবে।

জাতির শাšিত ও অগ্রগতি কামনা করে বাদ যোহরবা সুবিধাজনক সময়ে মসজিদে বিশেষ মোনাজাত এবং মন্দির, গীর্জা, প্যাগোডা ও অন্যান্য উপাসনালয়ে বিশেষ প্রার্থনা করা হবে। বেলা তিনটায় পাইওনিয়ার মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয় মাঠে মহিলাদের ক্রীড়া অনুষ্ঠান ও মুক্তিযুদ্ধ ভিত্তিক আলোচনা সভা এবং বিকেল সাড়ে তিনটায় খুলনা জেলা স্টেডিয়ামে কেসিসি বনাম জেলা প্রশাসন একাদশের মধ্যে প্রদর্শনী ফুটবল প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হবে। এছাড়া সুবিধাজনক তারিখ ও সময়ে পাইওনিয়ার মাধ্যমিক বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে মহিলাদের ভলিবল/হ্যান্ডবল টুর্নামেন্টের আয়োজন করা হবে।

ওইদিন সন্ধ্যা  ছ’টায় হাদিস পার্কে “সুখী, সমৃদ্ধ, বাংলাদেশ গঠনের ল্েয ডিজিটাল প্রযুক্তির সার্বজনীন ব্যবহার এবং মুক্তিযুদ্ধ” শীর্ষক আলোচনা, সিম্পোজিয়াম এবং সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হবে। ঐদিন নিজস্ব ব্যবস্থাপনায় স্থানীয় সংবাদপত্রসমূহে বিশেষ নিবন্ধ, সাহিত্য, সাময়িকী ও ক্রোড়পত্র প্রকাশ করবে। শহরের প্রধান প্রধান সড়ক ও সড়কদ্বীপসমূহ জাতীয় পতাকাসহ বিভিন্ন পতাকা দিয়ে সজ্জিত করা হবে। বিআইডব্লিউটিএ ও লঞ্চ ঘাটে স্টিমার, লঞ্চ ও জাহাজ এবং রেল সজ্জিতকরণ করা হবে।  সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যšত গিলাতলা শিশুপার্ক, বয়রা শিশু পার্ক ও খালিশপুর ওয়ান্ডারল্যান্ড শিশুপার্ক বিনাটিকেটে শিশুদের জন্য উম্মুক্ত রাখা হবে। সুবিধাজনক সময়ে খুলনা সিটি কর্পোরেশন খেতাবপ্রাপ্ত মুক্তিযোদ্ধাদের সংবর্ধনা জানাবে। ১৬ ও ১৭ ডিসেম্বর শহীদ হাদিস পার্কে মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক দুর্লভ প্রামাণ্যচিত্র প্রদর্শিত হবে। ১৬ ও ১৭ ডিসেম্বর ১০টা থেকে পাঁচটা পর্যšত উমেশচন্দ্র পাবলিক  লাইব্রেরিতে মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক দুর্লভ ছবি ও পু¯তক প্রদর্শন করা হবে।

১৪ ডিসেম্বর সকাল ১০টায় জেলা প্রশাসকের সম্মেলনকে কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের শিার্থীদের অংশগ্রহণে রচনা প্রতিযোগিতা, ১৭ ডিসেম্বর বিকেল ৪টায় উমেশচন্দ্র পাবলিক লাইব্রেরিতে মুক্তিযুদ্ধ ভিত্তিক আলোচনা ও কবিতা আবৃত্তি, ১৫ ডিসেম্বর শিশু একাডেমীর আয়োজনে শিশুদের চিত্রাংকন, আবৃত্তি ও দেশাত্মবোধক সংগীত প্রতিযোগিতা এবং ১৩ ডিসেম্বর জেলা বেলা ২টায় প্রশাসকের সম্মেলন কে মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক কুইজ প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হবে। ১৭ ডিসেম্বও সুবিধাজনক সময়ে রূপসাঘাটে বীরশ্রেষ্ঠ রুহুল আমীনের বীরত্ব ও মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক আলোচনা অনুষ্ঠিত হবে। ১৬ হতে ১৮ ডিসেম্বর মহান বিজয় দিবস উপলে খুলনা বিসিক-এর উদ্যোগে বিসিক ভবন প্রাঙ্গনে ুদ্র ও কুটির শিল্প মেলার আয়োজন করা হবে।

 


এক্সক্লুসিভ


সাক্ষাৎকার

Ad Space

আইন-আদালত


শিল্প-সাহিত্য

Ad Space

ভ্রমণ

ফিচার

Ad Space

পরিবেশ

Ad Space

আবহাওয়া

Ad Space

রাশিফল


Ad Space