‘রোহিঙ্গা পরিস্থিতি’ পর্যবেক্ষণে বাংলাদেশে কফি আনান কমিশন


জানুয়ারি ২৮ ২০১৭

এসবিনিউজ ডেস্ক : কফি আনান কমিশনের একটি প্রতিনিধি দল মিয়ানমার থেকে বাংলাদেশে নতুন করে আসা রোহিঙ্গাদের সর্বশেষ অবস্থা জানতে শনিবার ঢাকায় এসেছে। তিন সদস্যের এই প্রতিনিধি দলটি কক্সবাজার গিয়ে সরেজমিনে রোহিঙ্গাদের পরিস্থিতি সম্পর্কে খোঁজ নেবেন। এরপর ঢাকায় ফিরে এ নিয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলীর সঙ্গে কথা বলবেন। প্রতিনিধি দলের সদস্যরা হলেন- উইন ম্রা, আই লুইন ও ঘাশান সালামে।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, রাখাইন রাজ্য বিষয়ক পরামর্শক কমিশন যা ‘রাখাইন কমিশন’ নামেই ব্যাপকভাবে পরিচিত তার তিন জন সদস্য উইন ম্রা, আই লুইন ও ঘাশান সালামে আজ বিকেলে ঢাকায় এসেছেন। তাদের মধ্যে প্রথম দুজন সন্ধ্যায় এবং অন্যজন দুপুরে ঢাকায় পৌঁছান।

রোববার সফরের শুরুতে তাদের কক্সবাজার যাওয়ার কথা রয়েছে। সেখানে গিয়ে নতুন আসা রোহিঙ্গাদের পাশাপাশি স্থানীয় জেলা প্রশাসন এবং জাতিসংঘসহ বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সংগঠনের প্রতিনিধিদের সঙ্গে কথা বলবেন তারা। ১ ফেব্রুয়ারি ঢাকা ছাড়ার আগে রাখাইন কমিশনের তিন সদস্য বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ইন্টারন্যাশনাল অ্যান্ড স্ট্র্যাটেজিক স্টাডিজ (বিআইআইএসএস-বিস) আয়োজিত এক মতবিনিময় সভায় যোগ দেবেন।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, কমিশনের ম্যান্ডেট অনুযায়ী তারা ২০১৭ সালের দ্বিতীয়ার্ধে তাদের রিপোর্ট প্রকাশ করবেন। উল্লেখ্য, এর আগে গত ডিসেম্বরের শুরুতে কফি আনান নিজেও মিয়ানমার সফর করেছেন। ফলে কমিশনের তিন সদস্যের বাংলাদেশ সফরের পর রোহিঙ্গাদের পরিস্থিতি নিয়ে একটি সামগ্রিক মূল্যায়ন প্রতিবেদন তৈরির কাজটি সহজ হবে রাখাইন রাজ্য বিষয়ক পরামর্শক কমিশনের জন্য।

প্রসঙ্গত, গত ৯ অক্টোবরের পর মিয়ানমারের সশস্ত্র বাহিনী রাখাইন প্রদেশে মুসলিম রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর ওপর হামলা শুরু করে। এর ফলে শতাধিক রোহিঙ্গা নিহত হয়েছে ও হাজার হাজার রোহিঙ্গা উদ্বাস্তু হয়েছে। দেশটিতে শান্তিতে নোবেলজয়ী অং সান সুচির গণতান্ত্রিক সরকারের সামরিক সরকারের মতো আচরণের তীব্র নিন্দা ও উদ্বেগ জানিয়েছে সারাবিশ্ব। জাতিসংঘ, ইসলামিক দেশগুলোর সংস্থা ও অনেক দেশ ধর্মের কারণে মুসলিম নিধন ও নিপীড়ন বন্ধের আহবান জানায়।

 

এক্সক্লুসিভ

সাক্ষাৎকার

আইন-আদালত

শিল্প-সাহিত্য

ভ্রমণ

ফিচার

পরিবেশ

আবহাওয়া

রাশিফল


Ad Space