বুধবার, ১২ ডিসেম্বর ২০১৮ ♦ ২৮ অগ্রহায়ন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ ♦ 5 রবিউস-সানি ১৪৪০ হিজরী

Select your Top Menu from wp menus

মুক্তিযুদ্ধ মন্ত্রীর সাথে প্রেসক্লাব ইউ.কে মতবিনিময়

এসবিএন :  প্রবাসী মুক্তিযোদ্ধাদের তালিকাভুক্তি করে তাদেরকে সম্মননা জানাতে আওয়ামীলীগ সরকার নতুন উদ্যোগ নিয়েছে। লিভারপুল বাংলা প্রেসক্লাবের সাথে মতবিনিময় সভায় বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ.ক.ম মোজাম্মেল হক একথা বলেন।

বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ.ক.ম মোজাম্মেল হক এম.পি যুক্তরাজ্যস্থ লিভারপুল বাংলা প্রেসক্লাব ইউ.কে এর সাথে মতবিনিময় সভা গত বৃহস্পতিবার লিভারপুলের আর্লবাডগের একটি রেষ্টুরেন্টে অনুষ্ঠিত হয়।

ক্লাব সভাপতি শেখ ছুরত মিয়া আছাব এর সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক ফখরুল আলম এর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত সভা শুরুর প্রথমেই প্রধান অতিথি আ.ক.ম মোজাম্মেল হক এম.পি কে ফুলের তোড়া দিয়ে অভিনন্দন জানান প্রেসক্লাবের সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ।

সংক্ষিপ্ত আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন- লিভারপুলের কমিউনিটি ব্যক্তিত্ব শেখ দুদু মিয়া, বাংলা প্রেসক্লাবের সহ সভাপতি কবি রফিক আহমেদ,যুক্তরাজ্যে আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগ এর সাংগঠনিক সম্পাদক মসিউর রহমান মুসা, ওল্ডহাম যুবলীগের যুগ্ন সম্পাদক আবু ইউসুফ, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী মিজানুল হক, সুফি আব্দুল্লাহ মারুফ, আব্দুস শহিদ, জহিরুল ইসলাম প্রমুখ।

প্রধান অতিথি আ.ক.ম মোজাম্মেল হক এম.পি বলেন- প্রবাসী মুক্তিযোদ্ধাদের অবদান যথেষ্ট, বিশেষ করে যুক্তরাজ্যে প্রবাসীরা সেই সময় মিছিল, মিটিং করে জনমত সৃষ্টির পাশাপাশি তারা টাকা পয়সা দিয়েও যথেষ্ট সহযোগীতা করেছে। তাদের এই অবদানের স্বীকৃতি জানাতে আগামী মার্চ মাস থেকে প্রত্যেক দুতাবাসে ফরম পাঠিয়ে দেয়া হবে যা পরবর্তী একমাসের মধ্যে পুরণ করে দিতে হবে।

লিভারপুল বাংলা প্রেসক্লাবের সভাপতি শেখ ছুরত মিয়া আছাব বলেন -লিভারপুলে বিগত ৩০ বছরের মধ্যেও বাংলাদেশের কোন সরকারের কোন মন্ত্রী আসেনি। এই প্রথম আমাদের কমিউনিটির মাঝে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ.ক.ম মোজাম্মেল হক এম.পি এসে লিভারপুলবাসীকে ধন্য করে গেলেন।

মতবিনিময় সভাশেষে এক আনন্দঘন নৈশ্যভোজের মধ্যে দিয়ে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘটে। সভায় প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ ছাড়াও কমিউনিটির বিভিন্ন শ্রেণীপেশার লোকজন উপস্থিত ছিলেন।

 

Related posts