বৃহস্পতিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ♦ ৪ আশ্বিন ১৪২৬

Select your Top Menu from wp menus

পাকিস্তানকে হারিয়ে দ্বিতীয় স্থানে অস্ট্রেলিয়া

স্পোর্টস ডেস্ক: চলতি বিশ্বকাপে নিজেদের চতুর্থ ম্যাচে পাকিস্তানকে ৪১ রানে হারিয়েছে অস্ট্রেলিয়া। অজিদের দেওয়া ৩০৮ রানের জবাবে খেলতে নেমে ৪৫ ওভার ৪ বলে সবকয়টি উইকেট হারিয়ে ২৬৬ রান সংগ্রহ করে সরফরাজরা।

বুধবার (১২ জুন) ইংল্যান্ডের টনটন শহরে অবস্থিত ক্রিকেট স্টেডিয়াম কাউন্টি গ্রাউন্ডে টস জিতে অজিদের ব্যাটিংয়ে আমন্ত্রণ জানান পাকিস্তান অধিনায়ক সরফরাজ আহমেদ।

টস হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে শুরুটা দারুণ করে দুই অজি ওপেনার ফিঞ্চ ও ওয়ার্নার। দলীয় ১৪৬ রানে প্রথম উইকেট হারায় অস্ট্রেলিয়া। ইনিংসের ২৩তম ওভারের প্রথম বলে অজি ওপেনার অ্যারন ফিঞ্চকে ক্যাচ আউট করে সাজঘরে ফেরান পাকিস্তানি পেসার মোহাম্মদ আমির। সাজঘরে ফেরার আগে ৮৪ বলে ৬ চার ও ৪ ছক্কায় ৮২ রান করেছেন অজি অধিনায়ক।

অ্যারন ফিঞ্চের বিদায়ের পরপরই সাজঘরে ফিরেছেন স্টিভেন স্মিথ। শট খেলতে গিয়ে মোহাম্মদ হাফিজের বলে আসিফ আলীকে ক্যাচ তুলে দেন সাবেক এই অস্ট্রেলিয়া অধিনায়ক। ১৩ বল এক চারে ১০ রান করেছেন তিনি।

এরপর ঝড় তুলতে চেয়েছিলেন গ্লেন ম্যাক্সওয়েল। ১০ বলেই ২০ রান করে ফেলা এই ব্যাটসম্যানকে বোল্ড করেন শাহীন শাহ আফ্রিদি।

তবে একটা প্রান্ত আগলে রেখে ঠিকই দলকে এগিয়ে নিচ্ছিলেন ডেভিড ওয়ার্নার। ১০২ বলেই তুলে ফেলেন সেঞ্চুরি, শেষ পর্যন্ত মারকুটে এই ব্যাটসম্যানকে সাজঘরে ফেরত পাঠান শাহীন আফ্রিদি।

পাকিস্তানি পেসারকে তুলে মারতে চেয়েছিলেন ওয়ার্নার। আকাশে ভাসা বল তালুবন্দী করেন ইমাম উল হক। ১১১ বলে ১১ বাউন্ডারি আর ১ ছক্কায় গড়া অসি ওপেনারের ১০৭ রানের ইনিংসটি থামে তাতেই।

শন মার্শ ২৬ বলে করেন ২৩ রান। উসমান খাজা ১৬ বলে করেন ১৮ রান। কোল্টার নাইলের ব্যাট থেকে আসে ২ রান। অ্যালেক্স ক্যারি ২১ বলে করেন ২০ রান। শেষ পর্যন্ত ৪৯ ওভারে সব কয়টি উইকেট হারিয়ে ৩০৭ রান সংগ্রহ করে অস্ট্রেলিয়া। পাকিস্তানের পেসার মোহাম্মদ আমির ১০ ওভারে ৩০ রান দিয়ে তুলে নেন ৫টি উইকেট। দুটি উইকেট পান শাহিন শাহ আফ্রিদি। একটি করে উইকেট পান হাসান আলি, ওয়াহাব রিয়াজ এবং মোহাম্মদ হাফিজ।

১০ ওভারে ২ মেডেনসহ ৩০ রান খরচায় ৫টি উইকেট নিয়েছেন মোহাম্মদ আমির। ২টি উইকেট শিকার শাহীন শাহ আফ্রিদির।

৩০৮ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে শুরুতে কিছুটা বিপদে পড়েছিল আনপ্রেডিক্টেবলরা। তবে সেই বিপদ কাটিয়ে দলকে বেশ ভালোভাবেই এগিয়ে নিচ্ছেন ইমাম উল হক আর মোহাম্মদ হাফিজ।

শুরুটা দেখেশুনেই করে পাকিস্তান। প্রথম ২ ওভারে উঠে মাত্র ২ রান। এমন অবস্থায় তৃতীয় ওভারের প্রথম বলেই আউট হয়ে যান ফাখর জামান (০)। প্যাট কামিন্সের বলে পাকিস্তানি ওপেনারের কাট শটটি থার্ড ম্যানে উড়ে এসে দারুণভাবে তালুবন্দী করেন রিচার্ডসন।

দ্বিতীয় উইকেটে ইমাম আর বাবর আজমের জুটি থেকে আসে ৫৪ রান। এই জুটিতে বাবরের অবদানই ছিল বেশি। দারুণ খেলতে থাকা বাবর ৩০ রান করার পর ধরা পড়েন নাথান কল্টার নাইলের শর্ট বলে। ৫৬ রানে ২ উইকেট হারায় পাকিস্তান।

৪৯ বলে তিনটি চার আর একটি ছক্কায় ৪৬ রান আসে মোহাম্মদ হাফিজের ব্যাট থেকে। শোয়েব মালিক ০, আসিফ আলি ৫ রান করে বিদায় নেন।

আট নম্বরে নেমে ঝড়ো ইনিংস খেলেন হাসান আলি। ১৫ বলে তিনটি চার আর তিনটি ছক্কায় করেন ৩২ রান। দলপতি সরফরাজ আহমেদ আর নয় নম্বরে নামা ওয়াহাব রিয়াজ ৬৪ রানের জুটি গড়ে দলকে এগিয়ে নেন।

ইনিংসের ৪৫তম ওভারে রিভিউ নিয়ে ওয়াহাব রিয়াজকে ফিরিয়ে দেয় অস্ট্রেলিয়া। উইকেটের পেছনে ক্যাচ দিয়ে আউট হওয়ার আগে রিয়াজ করেন ৩৯ বলে ৪৫ রান করেন। তার ইনিংসে ছিল দুটি চার আর তিনটি ছক্কার মার। একই ওভারে ১৪৫ কিলোমিটার গতির বলে মোহাম্মদ আমিরকে বোল্ড করেন মিচেল স্টার্ক। দলপতি সরফরাজ ৪৮ বলে ৪০ রান করেন।

অজি পেসার প্যাট কামিন্স ১০ ওভারে ৩৩ রান খরচায় তুলে নেন তিনটি উইকেট। মিচেল স্টার্ক, রিচার্ডসন দুটি করে উইকেট পান। একটি করে উইকেট তুলে নেন কোল্টার নাইল এবং অ্যারন ফিঞ্চ।

Related posts