বুধবার, ১১ ডিসেম্বর ২০১৯ | ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

Select your Top Menu from wp menus

খুলনায় ফাঁসির আসামীর আত্মসমর্পণ

স্টাফ রিপোর্টার: খুলনায় এক্সিম ব্যাংক কর্মকর্তা পারভীন সুলতানাকে গণধর্ষণের পর বাবা ইলিয়াছ চৌধুরীসহ শ্বাসরোধে হত্যা মামলার ফাঁসির দন্ডপ্রাপ্ত পলাতক আসামী শরিফুল ইসলাম আত্মসমর্পণ করেছেন।

রোববার (২১ জুলাই) নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-৩ এ আত্মসমর্পণ করেন তিনি।

মামলাটির রাষ্ট্রপক্ষের স্পেশাল পিপি অ্যাডভোকেট ফরিদ আহমেদ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, ১৬ জুলাই হত্যা মামলায় ৫ জন আসামীর ফাঁসির আদেশ দেয় আদালত। আসামীদের মধ্যে শরিফুল ইসলাম পলাতক ছিলেন।

উল্লেখ্য, এক্সিম ব্যাংক কর্মকর্তা পারভীন সুলতানাকে গণধর্ষন ও তার পিতা ইলিয়াস চৌধুরীকে হত্যা করা হয়। হত্যা করে সেফটি ট্যাংকির মধ্যে বাবা ও মেয়ের মরদেহ ফেলে দেয় আসামীরা। পরে ঘরে লুটতরাজ চালিয়ে পালিয়ে যায় তারা। নগরীর লবণচরা থানাধীন বুড়ো মৌলভীর দরগা এলাকার ৩নং গলির ঢাকাইয়া হাউজ এপি ভিলা নামের বাড়িতে ২০১৫ সালের ১৮ সেপ্টেম্বর নৃশংস এ খুনের ঘটনা ঘটে। পারভীন সুলতানাকে গণধর্ষণের পর তার বাবা ইলিয়াছ চৌধুরীসহ হত্যা এবং লুটপাটের ঘটনায় পৃথক দু’টি মামলা হয়। এর মধ্যে হত্যা মামলার ৫ আসামি লবণচরা থানাধীন বুড়ো মৌলভীর দরগা রোডের বাসিন্দা শেখ আব্দুল জলিলের ছেলে সাইফুল ইসলাম পিটিল (৩০), তার ভাই শরিফুল (২৭),আবুল কালামের ছেলে  লিটন (২৮), অহিদুল ইসলামের ছেলে আবু সাইদ (২৫) ও মৃত সেকেন্দারের ছেলে আজিজুর রহমান পলাশের (২৬) ফাঁসির রায় হয়। আসামীদের মধ্যে শরিফুল পলাতক ছিলেন।

Related posts