রবিবার, ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯ | ৩০ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

Select your Top Menu from wp menus

খুলনায় প্রিপেইড মিটারের দুর্নীতির বিরুদ্ধে কর্মসূচি ঘোষণা

স্টাফ রিপোর্টার: খুলনায় ওয়েস্ট জোন পাওয়ার ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানির (ওজোপাডিকো) প্রি পেইড মিটারে বিদ্যমান দুর্নীতি ও অনিয়মের প্রতিবাদে ১২ দফা কর্মসূচি ঘোষণা করেছে ওজোপাডিকোর প্রি পেইড মিটারে বিদ্যমান দুর্নীতি প্রতিরোধে সংগ্রাম কমিটি। সোমবার (১৫ জুলাই) খুলনা প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে এ কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়।

১২ দফা কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে আজ মঙ্গলবার জেলা প্রশাসক এবং আগামীকাল বুধবার বিভাগীয় কমিশনারের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রীর নিকট স্মারকলিপি প্রদান, ১৮ জুলাই বিভাগীয় পরিচালকের মাধ্যমে দুদক চেয়ারম্যানের নিকট স্মারকলিপি প্রদান, ১৯ থেকে ৩১ জুলাই পর্যন্ত সংগ্রাম কমিটির থানা ও ওয়ার্ড কমিটি গঠন, বিইআরসির সঙ্গে চুক্তি অনুযায়ী  প্রতিস্থাপন করা প্রিপেইড মিটারের জামানতের টাকা ফেরত দেয়া, ২শ’ কোটি টাকার রিবেট ২ কোটি টাকা তিন বছর আটকে রাখার লভ্যাংশ গ্রাহকদের ফেরত দেয়া, পূর্বের আত্মসাৎকৃত রিবেটের টাকা সহজে ফেরত দেয়া, ওজোপাডিকোর সদর দপ্তরকে জনগণের জন্য উম্মুক্ত করা, অকেজো ডিজিটাল মিটারের মূল্য পরিশোধ করা, মিটার স্থানান্তরের সময় টাকা বা ফি না নেয়া, ওজোপাডিকোর সকল দুর্নীতি বন্ধ করা, ফ্রি মিটার দেয়ার নাম করে ভাড়া নেয়া বন্ধ করা, অবৈধ পন্থায় মিটার আমদানি বন্ধ করা, লক ছাড়াতে ফি নেয়া বন্ধ কর করা, পূর্বের জামানতের টাকা ফেরত দেয়া, বাড়তি সংযোগ ফি না নেয়া এবং আগস্ট মাসজুড়ে ২১ জেলায় মতবিনিময় ও সেপ্টেম্বরের প্রথম সপ্তাহে কনভেনশন।  সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন সংগ্রাম কমিটির আহবায়ক ডা. শেখ বাহারুল আলম।

লিখিত বক্তব্যে বলা হয়, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যখন দেশের বিদ্যুৎ খাতের অভূতপূর্ব সাফল্য অর্জন করেছেন, প্রধানমন্ত্রীর দক্ষ নেতৃত্বে যখন ডিজিটাল বাংলাদেশের স্লোগান নিয়ে দেশ ক্রমান্বয়ে এগিয়ে যাচ্ছে ঠিক তখনই খুলনাসহ পদ্মার এপারের ২১ জেলা নিয়ে গঠিত ওয়েস্ট জোন পাওয়ার ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানির ব্যবস্থাপনা পরিচালকসহ ২-১ জন কর্মকর্তা এ অঞ্চলের বিদ্যুৎ গ্রাহকদের নিষ্পেষণের জালে নিমজ্জিত করে নিজেদের আখের গোছাতে ব্যস্ত রয়েছেন।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে বলা হয়, প্রিপেইড মিটার নামক যন্ত্রদানব খুলনার গ্রাহকদের ওপর চাপিয়ে দিয়ে ওজোপাডিকো নিজেদের ফায়দা হাসিলের চেষ্টা করার যে প্রক্রিয়া শুরু করেছে তার বিরুদ্ধে সম্প্রতি জনগণের স্বার্থে আন্দোলন শুরু হয়। ইতোমধ্যে প্রিপেইড মিটারে বিদ্যমান দুর্নীতি প্রতিরোধে সংগ্রাম কমিটি গঠনের মধ্যদিয়ে সংবাদ সম্মেলন, মানববন্ধনসহ বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করা হয়েছে।

সংবাদ সম্মেলনে দাবিসমূহ বাস্তবায়ন না হওয়া পর্যন্ত জনগণকে প্রিপেইড মিটার প্রত্যাখ্যান করার আহবান জানানো হয়।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন সংগ্রাম কমিটির যুগ্ম আহবায়ক শরীফ শফিকুল হামিদ চন্দন ও নূর মোহাম্মদ শেখ, সদস্য সচিব মহেন্দ্রনাথ সেন, যুগ্ম সদস্য সচিব শাহ মামুনুর রহমান তুহিন, তপন রায়, মফিদুল ইসলাম, শেখ আব্দুল হালিম, রুহুল আমিন সিদ্দিকী, অ্যাডভোকেট মেহেদী ইনসার, জি এম রাসেল ইসলাম, মাহবুবুল আলম প্রমুখ।

Related posts