খালেদা জিয়া কারামুক্ত না হওয়া পর্যন্ত রাজপথে অবস্থান চলবে:বিএনপি


ফেব্রুয়ারি ১৭ ২০১৮

স্টাফ রিপোর্টার: বিনা ভোটে ক্ষমতা দখলকারী অবৈধ আওয়ামী লীগ সরকার জনবিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে বলে দাবি করেছেন খুলনা মহানগর বিএনপির নেতারা। তারা বলেন, সরকারের দুর্নীতি, লুটপাট, অনিয়ম, হামলা-মামলা-নির্যাতনে জর্জরিত মানুষ ফ্যাসিবাদের জগদ্দল পাথরের চাপ থেকে মুক্তি চায়। বানোয়াট জালিয়াত নথিপত্রে দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে কারাবন্দী করার কঠোর নিন্দা জানিয়ে তারা বলেন, বিএনপিকে নির্বাচনের বাইরে রেখে বাকশালী দুঃশাসন প্রলম্বিত করার বাসনা পূরণ হবেনা। রায়ের পর আট দিন পার হলেও সার্টিফায়েড কপি না দেওয়া সরকারের চক্রান্ত বলে অভিযোগ করেন তারা। শান্তিপূর্ণ ও জনসম্পৃক্ত কর্মসূচি পালনের মাধ্যমে রাজপথের দখল রেখে সরকারের পতন নিশ্চিত করা হবে বলে সমাবেশ থেকে ঘোষণা দেয়া হয়।

বিএনপির চেয়ারপারসন দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তির দাবিতে কেন্দ্র ঘোষিত গণস্বাক্ষর কর্মসূচির উদ্বোধনকালে সমাবেশে বক্তারা এসব কথা বলেন। শনিবার (১৭ফেব্রুয়ারি) বেলা ১১ টায় কে ডি ঘোষ রোডে দলীয় কার্যালয়ের সামনে স্থাপিত মঞ্চে কর্মসূচির উদ্বোধন করা হয়। এ সময় বিএনপি এবং অঙ্গ সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ ছাড়াও ২০ দলীয় জোটের শরীক দলসমূহের শীর্ষ নেতৃবৃন্দ এবং পেশাজীবী সংগঠনের নেতারা উপস্থিত হয়ে সংহতি প্রকাশ করে বক্তব্য রাখেন। এরপর তারা দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে স্বাক্ষর করেন।

গণস্বাক্ষর কর্মসূচিতে সভাপতিত্ব করেন বিএনপির কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ও মহানগর শাখার সভাপতি সাবেক এমপি নজরুল ইসলাম মঞ্জু। বক্তব্য রাখেন ও স্বাক্ষর করেন কেসিসির মেয়র মনিরুজ্জামান মনি, সাবেক এমপি কাজী সেকেন্দার আলী ডালিম, সাবেক এমপি মুজিবর রহমান, মীর কায়সেদ আলী, শেখ মোশারফ হোসেন, জাফরউল্লাহ খান সাচ্চু, মোল্লা আবুল কাশেম, সিরাজুল ইসলাম মেঝো ভাই, শেখ খায়রুজ্জামান খোকা, স ম আব্দুর রহমান, শেখ জাহিদুল ইসলাম, শেখ ইকবাল হোসেন, ফখরুল আলম।

২০ দলীয় জোট নেতাদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন ও গণস্বাক্ষর করেন বিজেপি সভাপতি এ্যাড. লতিফুর রহমান লাবু, জামায়াতের সহকারী সেক্রেটারী এ্যাড. লস্কর শাহ আলম, জেপি (জাফর) সভাপতি মোস্তফা কামাল, মুসলিম লীগের সাধারণ সম্পাদক এ্যাড. আক্তার জাহান রুকু, বিজেপির সিরাজউদ্দিন সেন্টু, খেলাফত মজলিসের হাফেজ মুফতি আলী আহমেদ, জামায়াত নেতা মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান টিংকু, খেলাফত মজলিসের মুন্সি সোলায়মান।

পেশাজীবী নেতাদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন ও স্বাক্ষর করেন ডক্টরস এ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ ড্যাবের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক অধ্যাপক ডাঃ সেখ মোঃ আখতার উজ জামান, ন্যাশনালিষ্ট টিচার এ্যাসোসিয়েশন এনটিএ খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের সভাপতি প্রফেসর ড. রেজাউল করিম, প্রফেসর ড. শামীম মাহবুবুল হক, এ্যাসোসিয়েশন অব ইঞ্জিনিয়ার্স অ্যাব সভাপতি প্রফেসর ড. খন্দকার আফতাব হোসেন, সাধারণ সম্পাদক আরিফুল ইসলাম জুয়েল, প্রকৌশলী কওসার আলী, এম এ কাইয়ুম, আইনজীবী ঐক্য পরিষদ সভাপতি এ্যাড. এস আর ফারুক, বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়ন বিএফইউজের নির্বাহী সদস্য এহতেশামুল হক শাওন ও মানবজমিনের ব্যুরো প্রধান রাশিদুল ইসলাম, খুবি বন্ধনের সাধারণ সম্পাদক এস এম মোহাম্মদ আলী।

 


এক্সক্লুসিভ


সাক্ষাৎকার

Ad Space

আইন-আদালত


শিল্প-সাহিত্য

Ad Space

ভ্রমণ

ফিচার

Ad Space

পরিবেশ

Ad Space

আবহাওয়া

Ad Space

রাশিফল


Ad Space