রবিবার, ১৬ জুন ২০১৯ ♦ ২ আষাঢ় ১৪২৬

Select your Top Menu from wp menus

কোল্টার-নাইল, স্টার্কের নৈপুণ্যে উইন্ডিজকে হারাল অস্ট্রেলিয়া

স্পোর্টস ডেস্ক: দলের বিপদের সময় ত্রাতা হয়ে এলেন লোয়ার অর্ডার ব্যাটসম্যান ন্যাথান কোল্টার-নাইল। ঝড় তুলে গড়লেন বিশ্বকাপে আট নম্বরে নেমে সর্বোচ্চ রানের কীর্তি। দলকে এনে দিলেন লড়াই করার মতো রান। বোলিংয়ে পথ দেখালেন মিচেল স্টার্ক। এবারের আসরে প্রথম বোলার হিসেবে পাঁচ উইকেট নিয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে অস্ট্রেলিয়াকে এনে দিলেন দারুণ জয়।
ক্যারিবিয়ানদের ১৫ রানে হারিয়ে টানা দ্বিতীয় জয় পেল বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা।
পাল্টা আক্রমণে ক্যারিয়ার সেরা ব্যাটিংয়ে কোল্টার-নাইল ৬০ বলে খেলেন ৯২ রানের ঝড়ো ইনিংস। নটিংহ্যামের ট্রেন্ট ব্রিজে বৃহস্পতিবার ৪৯ ওভারে ২৮৮ রান তোলে অস্ট্রেলিয়া। স্টার্কের দারুণ বোলিংয়ে ৯ উইকেটে ২৭৩ রানে থামে তারা।
টস হেরে ব্যাটিং করতে নেমে ইনিংসের শুরুতে ক্যারিবিয়ান পেসারদের সামলাতে গিয়ে দিশেহারা হয়ে পড়েছিলেন অস্ট্রেলিয়ার ব্যাটসম্যানরা। তৃতীয় ওভারে গতিময় পেসার ওশান টমাসের বলে কট বিহাইন্ড হয়ে ফিরেন অ্যারন ফিঞ্চ।
বিশ্ব চ্যাম্পিয়নদের আগের ম্যাচের নায়ক ডেভিড ওয়ার্নারকে ফেরানোর পর শূন্য রানে গ্লেন ম্যাক্সওয়েলকে বিদায় করেন শেলড্ন কটরেল। তার দুই উইকেটের মাঝে উসমান খাওয়াজাকে কট বিহাইন্ড করেন আন্দ্রে রাসেল। ৩৮ রানে ৪ উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে যায় অস্ট্রেলিয়া।
ক্রিজে গিয়েই শট খেলতে শুরু করেছিলেন মার্কাস স্টয়নিস। তাকে বেশিক্ষণ টিকতে দেননি জেসন হোল্ডার।
শুরু থেকে আস্থার সঙ্গে খেলছিলেন স্মিথ। নড়বড়ে ছিলেন কিপার-ব্যাটসম্যান অ্যালেক্স কেয়ারি। ১৫তম বলে খোলেন রানের খাতা। প্রথম ২৬ বলে করেন ৩ রান। ধীরে ধীরে নিজেকে ফিরে পেয়ে বাড়ান রানের গতি। ৭ চারে ৪৫ রান করা কেয়ারিকে কট বিহাইন্ড করে ৬৮ রানের জুটি ভাঙেন রাসেল।
ক্রিজে গিয়েই বোলারদের ওপর চড়াও হন কোল্টার-নাইল। স্মিথও ততক্ষণে খেলতে শুরু করেছেন শট। দ্রুত জমে যায় সপ্তম উইকেট জুটি। বিশ্বকাপে এই উইকেটে অস্ট্রেলিয়ার আগের সেরা ৭০ ছাড়িয়ে তিন অঙ্ক ছুঁয়ে ফেলেন তারা।
শেলডন কটরেলের দুর্দান্ত এক ক্যাচে স্মিথের বিদায়ে ভাঙে ১০২ রানের জুটি। দায়িত্বশীল ব্যাটিংয়ে ৭ চারে ৭৩ রান করেন অস্ট্রেলিয়ার সাবেক অধিনায়ক।
লোয়ার অর্ডার ব্যাটসম্যানদের নিয়ে দলকে তিনশ রানের কাছে নিয়ে যান কোল্টার-নাইল। আশা জাগিয়েছিলেন ওয়ানডেতে আট নম্বরে ক্রিস ওকসের রেকর্ড অপরাজিত ৯৫ ছাড়িয়ে যাওয়ার। তবে এর আগেই তাকে থামান ক্রেইগ ব্র্যাথওয়েট। ওয়ানডেতে নিজের আগের সেরা ৩৪ ছাড়িয়ে আট চার ও চার ছক্কায় ৯২ রান করেন কোল্টার-নাইল।
জোড়া আঘাতে অস্ট্রেলিয়াকে ৪৯তম ওভারে গুটিয়ে দেওয়া ব্র্যাথওয়েট ৬৭ রানে নেন ৩ উইকেট। রাসেল, কটরেল ও টমাস নেন দুটি করে উইকেট।
সংক্ষিপ্ত স্কোর:
অস্ট্রেলিয়া: ৪৯ ওভারে ২৮৮ (ওয়ার্নার ৩, ফিঞ্চ ৬, খাওয়াজা ১৩, স্মিথ ৭৩, ম্যাক্সওয়েল ০, স্টয়নিস ১৯, কেয়ারি ৪৫, কোল্টার-নাইল ৯২, কামিন্স ২, স্টার্ক ৮, জ্যাম্পা ০*; টমাস ১০-০-৬৩-২, কটরেল ৯-০-৫৬-২, রাসেল ৮-০-৪১-২, ব্র্যাথওয়েট ১০-০-৬৭-৩, হোল্ডার ৭-২-২৮-১, নার্স ৫-০-৩১-০)
ওয়েস্ট ইন্ডিজ: ৫০ ওভারে ২৭৩/৯ (গেইল ২১, লুইস ১, হোপ ৬৮, পুরান ৪০, হেটমায়ার ২১, হোল্ডার ৫১, রাসেল ১৫, ব্র্যাথওয়েট ১৬, নার্স ১৯*, কটরেল ১, টমাস ০*; স্টার্ক ১০-১-৪৬-৫, কামিন্স ১০-৩-৪১-২, কোল্টার-নাইল ১০-০-৭০-০, ম্যাক্সওয়েল ৬-১-৩১-০, জ্যাম্পা ১০-৫৮-১, স্টয়নিস ৪-০-১৮-০)
ফল: অস্ট্রেলিয়া ১৫ রানে জয়ী
ম্যান অব দা ম্যাচ: ন্যাথান কোল্টার-নাইল

Related posts