মঙ্গলবার, ২১ মে ২০১৯ ♦ ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬

Select your Top Menu from wp menus

‘কৃষিতে অভূতপূর্ব সাফল্য অর্জন’

স্টাফ রিপোর্টার: খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের এগ্রোটেকনোলজি ডিসিপ্লিনের উদ্যোগে ‘বঙ্গবন্ধুর অবদান কৃষিবিদ ক্লাস ওয়ান’ শ্লোগানকে সামনে রেখে জাতীয় কৃষিবিদ দিবস উপলক্ষে উপাচার্য প্রফেসর ড. মোহাম্মদ ফায়েক উজ্জামানের নেতৃত্বে ক্যাম্পাসে এক বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা বের করা হয়। শোভাযাত্রাটি আচার্য জগদীশচন্দ্র বসু একাডেমিক ভবনের সামনে থেকে শুরু করে হাদী চত্বর হয়ে শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ প্রশাসন ভবনের সামনে দিয়ে একাডেমিক ভবনের সামনে গিয়ে শেষ হয়।
শোভাযাত্রা শেষে এগ্রোটেকনোলজি ডিসিপ্লিন প্রধান প্রফেসর ড. সরদার শফিকুল ইসলামের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন জীব বিজ্ঞান স্কুলের ডিন প্রফেসর ড. মোঃ রায়হান আলী, প্রফেসর ড. সঞ্জয় কুমার অধিকারী, প্রফেসর ড. মোঃ সারওয়ার জাহান, ফিশারিজ এন্ড মেরিন রিসোর্স টেকনোলজি ডিসিপ্লিন প্রধান (ভারপ্রাপ্ত) প্রফেসর ড. মোঃ গোলাম সারোয়ার এবং পরিবেশ বিজ্ঞান ডিসিপ্লিনের প্রফেসর ড. সালমা বেগম। অনুষ্ঠানটি সঞ্চলনা করেন সংশ্লিষ্ট ডিসিপ্লিনের প্রফেসর ড. মোঃ মতিউল ইসলাম।
এ সময় সংশ্লিষ্ট ডিসিপ্লিনের শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও বিভিন্ন ডিসিপ্লিন কৃষিবিদ শিক্ষকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। কৃষিবিদবগণ সদ্য স্বাধীন বাংলাদেশে কৃষিকে গুরুত্ব দিয়ে উৎপাদন বৃদ্ধির লক্ষ্যে কৃষিবিদদের প্রথম শ্রেণির মর্যাদা প্রদানসহ নানামুখী উদ্যোগ গ্রহণের জন্য বঙ্গবন্ধুর প্রতি গভীর শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করেন।
বক্তারা বলেন দেশে কৃষিবিদ ও কৃষিবিজ্ঞানীদের নিরলস প্রচেষ্টার কারণে দেশ আজ কৃষিতে অভূতপূর্ব সাফল্য অর্জন করছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দূরদর্শী নেতৃত্ব ও পৃষ্ঠপোষকতার কারণে দেশে খাদ্যশস্য, মৎস্য, সবজিসহ কৃষির সকল ক্ষেত্রে উৎপাদনে স্বয়ম্ভরতা অর্জন করেছে। সম্প্রতি কৃষি জমি রক্ষার জন্য প্রধানমন্ত্রী প্রতি উপজেলায় মাস্টার প্লান তৈরির জন্য যে নির্দেশনা দিয়েছেন তাকে সময়োপযোগী ঘোষণা বলে উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানানো হয়। এছাড়া কৃষিবিদদের প্রতি স্ব স্ব অবস্থানে থেকে দেশের কল্যাণে কাজ করার আহবান জানানো হয়।

Related posts