বুধবার, ১৯ জুন ২০১৯ ♦ ৫ আষাঢ় ১৪২৬

Select your Top Menu from wp menus

ওবায়দুল কাদেরের বাইপাস সার্জারি বুধবার

এসবিনিউজ ডেস্ক: ম্যাসিভ হার্ট অ্যাটাক করে সিঙ্গাপুরের মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের বাইপাস সার্জারি আজ হচ্ছে না। আগামীকাল বুধবার সিঙ্গাপুর সময় সকাল ১০টায় এ অস্ত্রোপচার করা হবে।
মঙ্গলবার (১৯মার্চ) সকালে সিঙ্গাপুরে ওবায়দুল কাদেরের চিকিৎসা সমন্বয়ক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) পরিচালক ও নিউরোলজিস্ট অধ্যাপক ডা. আবু নাসার রিজভী এ তথ্য জানিয়েছেন।
তিনি জানান, ওবায়দুল কাদেরের হার্টে বাইপাস সার্জারি করবেন তার চিকিৎসায় ডা. ফিলিপ কোহের নেতৃত্বে গঠিত মেডিকেল বোর্ডের সিনিয়র সদস্য কার্ডিওথোরাসিক সার্জন ডা. সিবাস্টিন কুমার সামি।
ডা. আবু নাসার রিজভী আরও জানান, ওবায়দুল কাদেরের রক্তচাপ ও ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে রয়েছে এবং শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল বলে জানিয়েছেন মেডিকেল বোর্ড। আগামীকাল তার বাইপাস সার্জারি করা হবে। কাদেরের পরিবার এ সময় দেশবাসীর কাছে তার সুস্থতার জন্য দোয়া চেয়েছেন বলেও জানান ডা. আবু নাসার।
এর আগে কার্ডিওথোরাসিক সার্জন ডা. সিবাস্টিন কুমার সামি কাদেরের চিকিৎসার সর্বশেষ অগ্রগতি ও সার্জারির বিষয়ে পরিবারের সদস্যদের জানান।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন ওবায়দুল কাদেরের স্ত্রী ইশরাতুন্নেসা কাদের, ছোট ভাই বসুরহাট পৌর মেয়র আবদুল কাদের মির্জা, আওয়ামী লীগ নেতা আলাউদ্দীন নাসিম, সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের সচিব মো. নজরুল ইসলাম, সিঙ্গাপুরে নিযুক্ত বাংলাদেশের হাইকমিশনার মোস্তাফিজুর রহমান ও চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান আবদুচ সালাম।
এর আগে গতকাল সোমবার জানানো হয়েছিল, সব কিছু ঠিক থাকলে মঙ্গলবার স্থানীয় সময় দুপুর ২টার দিকে ওবায়দুল কাদেরের বাইপাস সার্জারি করা হবে।
এ বিষয়ে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের কার্ডিওলজি বিভাগের অধ্যাপক ডা. হারিসুল হক এবং অধ্যাপক ডা. মোস্তফা জামান সোমবার যুগান্তরকে বলেন, মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতালের সঙ্গে তাদের যোগাযোগ হয়েছে। সেখান থেকেই জানানো হয়েছে সব কিছু ঠিক থাকলে মঙ্গলবার স্থানীয় সময় বেলা ২টার দিকে ওবায়দুল কাদেরের বাইপাস সার্জারি করা হবে।
এদিকে সিঙ্গাপুরের মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতাল থেকে মন্ত্রীর তথ্য কর্মকর্তা আবু নাছের জানিয়েছেন, সোমবার সকালে তিনি (ওবায়দুল কাদের) সীমিতভাবে হাঁটাচলা করেছেন। এ সময় তিনি বাংলাদেশের বিভিন্ন বিষয়ে এবং নিউজিল্যান্ডে হামলার ঘটনার খোঁজ নেন।
নিউজিল্যান্ড থেকে ক্রিকেটাররা সবাই নিরাপদে ফিরেছে কিনা সে বিষয়েও জানতে চেয়েছেন। সেতুমন্ত্রীর এ তথ্য কর্মকর্তা আরও জানান, সেতুমন্ত্রীর শারীরিক অবস্থা জানতে মঙ্গলবার পরীক্ষা-নিরীক্ষা করা হবে। এর পর চিকিৎসকরা সিদ্ধান্ত নেবেন তার বাইপাস সার্জারি কখন করবেন।
প্রসঙ্গত, ৬৭ বছর বয়সী ওবায়দুল কাদের হৃদরোগ, ডায়াবেটিস ছাড়াও শ্বাসতন্ত্রের জটিল রোগ সিওপিডিতে (ক্রনিক অবস্ট্রাকটিভ পালমোনারি ডিজিজ) ভুগছেন। গত ৩ মার্চ ভোররাতে শ্বাসকষ্ট শুরু হলে তিনি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হন। সেখানে এনজিওগ্রামে তার হৃৎপিণ্ডের রক্তনালিতে তিনটি মেজর ব্লকসহ একাধিক ব্লক ধরা পড়ে। এর মধ্যে একটি ব্লক স্টেন্টিংয়ের মাধ্যমে অপসারণ করেন চিকিৎসকরা।
অবস্থা কিছুটা স্থিতিশীল হলে ৪ মার্চ বিকালে উন্নত চিকিৎসার জন্য এয়ার অ্যাম্বুলেন্সে করে তাকে সিঙ্গাপুরে মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করা হয়।
সেদিন রাতেই একটি মেডিকেল বোর্ড গঠন করে ওবায়দুল কাদেরের চিকিৎসা শুরু করেন মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতালের চিকিৎসকরা।

Related posts